Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪,

মে দিবস ও ঈদ পুনর্মিলন: মালয়েশিয়ায় সাংস্কৃতিক উৎসব করল বাঙালি প্রবাসীরা

আশরাফুল মামুন

আশরাফুল মামুন

মে ৩, ২০২৪, ১২:০২ পিএম


মে দিবস ও ঈদ পুনর্মিলন: মালয়েশিয়ায় সাংস্কৃতিক উৎসব করল বাঙালি প্রবাসীরা

ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় মহান মে দিবস ও ঈদ পূর্ণ মিলনীতে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ বর্ষ বরণে সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

অনুষ্ঠানটির সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনা করেন ওয়াই এন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়াই বি এইচ জি মোহাম্মদ ইয়াসিন টুটুল।

গতকাল রাজধানী কুয়ালালামপুরের জালান পাডাং পালাং এ উপলক্ষ্যে বিশিষ্ট শিল্পপতি বা দাতু সহ কয়েক শতাধিক মালয়েশিয়া স্থানীয় বিশিষ্ট নাগরিক নারী পুরুষ এতে অংশ গ্রহণ করেন। আরও অংশগ্রহণ গ্রহণ করেন বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ান কমিউনিটির নেতা - কর্মী,  পুলিশ কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, জনপ্রিয় শিল্পী ও অভিনেতা।

এসময় সকল অথিতিবৃন্দ কে অভ্যর্থনা জানান মোহাম্মদ ইয়াসিন টুটুল এর মালয়েশিয়ান সহধর্মিণী।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরু হয়ে প্রথম অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা পর্ব।  কয়েকটি পর্বে অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়ে বিকেল ২ টা সময় থেকে শুরু হয়ে চলে একটানা রাত ১২ টা পর্যন্ত।

এসময় অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ান স্থানীয় নাগরিক ও বাংলাদেশি প্রবাসীদের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে। বাংলা নববর্ষ বরণ উপলক্ষ্যে বাঙালি সংস্কৃতি বিদেশের মাটিতে পরিচিত করতে মালয়েশিয়ান ও বাংলাদেশিদের জন্য দেশীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। এসময় মালয়েশিয়ানরা বাংলাদেশি মসলার ঝাল ঝাল খাবার খেয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেন।

বাংলাদেশি খাবার পরিবেশনের পর বাংলার ঢোল, বাঁশি,  মন্দিরা,  হারমোনিয়াম বাজিয়ে মালয়েশিয়ান অতিথিদের আনন্দ বিনোদন দেন বাংলাদেশের বিখ্যাত বাদ্যযন্ত্র বাদক প্রবাসীরা। অনুষ্ঠানে আগত মালয়েশিয়ান   অতিথিদের ঢোলের তালে নাচ করতেও দেখা গেছে। এসময় সাংস্কৃতিক উৎসবে বাংলাদেশ থেকে আগত  রেডিও টেলিভিশনের বিখ্যাত গায়ক হাসান মাহমুদ  দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন। আরও গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা বাউল শিল্পী লতিফ সরকার সহ আরো অনেকে।

এসময় বাংলাদেশি ও মালয়েশিয়ানরা এসব গানে মুগ্ধ হয়ে মোহাম্মদ ইয়াসিন টুটুলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রতি বছরের মতো এ বছরও বিশাল আয়োজনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি মালয়েশিয়ান ও প্রবাসী বাংলাদেশি কাছে ব্যাপক সাড়া ফেলেছ।বছরের এই একটি দিনে সকল প্রবাসীদের নিয়ে তিনি এই দিনটি উদ্‌যাপন করার কারণে মালয়েশিয়ান নাগরিক ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে আন্তরিক সম্পর্কের এক সেতুবন্ধন হিসেবে ভূমিকা রাখছে।

মালয়েশিয়ানদের মধ্যে বাংলাদেশি সংস্কৃতি বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় মোহাম্মদ ইয়াসিন টুটুল এর  প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ধাতু শ্রী শহিদুল্লাহ শহীদ, দাতু মোহাম্মদ আক্তার হেসেন, ধাতু আব্দুর রউফ লিটন, ধাতু কুমার,  এক্সপেট সার্ভিস এসডিএন বিএইচডি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব গিয়াসউদ্দিন আহমেদ।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন  বাংলাদেশের জাতীয়  চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত আরমান পারভেজ মুরাদ, উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া বুকিট আমান বা সিআইডি পুলিশ কমিশনার জনাব মো.জাফ্রি। মামা সাংস্কৃতিক শিল্পী গোষ্ঠী বিডি মালয়েশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা এমদাদুল হক সবুজ, মো. তোফাজ্জল খান, বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতা রাশেদ বাদল সহ মালয়েশিয়ান ও বাংলাদেশ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তি বর্গ। 

বিআরইউ

Link copied!