community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪,

প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ১২ শিক্ষার্থী

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার আবেদনেও এগিয়ে মেয়েরা

মো. মাসুম বিল্লাহ

মার্চ ৯, ২০২৩, ০৫:১৯ পিএম


মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার আবেদনেও এগিয়ে মেয়েরা

আগামীকাল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে এমবিবিএস (মেডিকেল) ভর্তি পরীক্ষা। এবার মেডিকেলে ভর্তির জন‌্য আবেদন করেছেন এক লাখ ৩৯ হাজার ২১৭ জন। আবেদনকারীদের মধ‌্যে ছেলে ৬৪ হাজার ২৬৪ জন (৪৬ দশমিক ১৬ শতাংশ), মেয়ে ৭৪ হাজার ৯৫৩ জন (৫৩ দশমিক ৮৪ শতাংশ)। পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ১২ জন পরীক্ষার্থী।

সারাদেশে ১৯টি কেন্দ্রের ৫৭টি ভেন্যুতে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এক ঘণ্টার ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা হবে। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের আবেদন অনলাইনে টেলিটকের মাধ্যমে গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ মেডিকেল অ‌্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল প্রণীত ভর্তি নীতিমালা ২০২৩ অনুযায়ী- এবারের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পাতিবার (০৯ মার্চ) সচিবালয়ে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ‌্য ও পরিবার কল‌্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ‌্য জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, চলতি বছর সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ১০৮টি মেডিকেল কলেজে মোট আসন ১১ হাজার ১২২টি। মোট ভেন্যুর সংখ্যা ৫৭টি, মোট কক্ষ এক হাজার ৯৭৭টি, ঢাকায় মোট আবেদনকারী ৫৭ হাজার ৪৩৬ জন, ঢাকায় ভেন্যুর সংখ্যা ১৮টি।

দেশে মোট সরকারি মেডিকেল কলেজ ৩৭টি। সরকারি মেডিকেলে এমবিবিএসে চার হাজার ৩৫০টি আসন রয়েছে। মেধা কোটায় তিন হাজার ৩৮৪ জন, জেলা কোটায় ৮৪৬ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৮৭ জন ও উপজাতি কোটায় ৩৩ জন ভর্তি হতে পারবেন।

এছাড়া ৭১টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের ছয় হাজার ৭৭২টি আসনের জন্য ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর মধ্যে থেকে ৩৩ হাজার ৮৬০ জন শিক্ষার্থী মেধা ও পছন্দের ভিত্তিতে ভর্তির জন্য বিবেচিত হবে বলে জানান জাহিদ মালেক।

ভর্তি পরীক্ষা নির্বিঘ্নে, সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ করার জন্য দেশের খ্যাতিমান শিক্ষক ও চিকিৎসকদের সমন্বয়ে ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটি, সাংবাদিক ও দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সমন্বয়ে ওভারসাইট কমিটি এবং অভিজ্ঞ মেডিকেল শিক্ষকদের সমন্বয়ে উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া নম্বর সমতাকরণের জন্য আলাদাভাবে কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

সরকারি মেডিকেল কলেজে একটি আসনের বিপরীতে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩২ জন। সরকারি ও বেসরকারি প্রতিটি আসনের জন্য ১২ দশমিক পাঁচজন পরীক্ষার্থী বলেও জানান মন্ত্রী।

এআরএস

Link copied!