Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

যে ৫ কারণে আপনি প্রেমিকা শূন্য

আমার সংবাদ ডেস্ক

সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২২, ০৫:১০ পিএম


যে ৫ কারণে আপনি প্রেমিকা শূন্য

প্রেমের স্নিগ্ধ সম্পর্ক পর্যন্ত সবাই পৌঁছাতে পারে না। জোর করে সম্পর্কে জড়ানো যায় না। দুটি হৃদয় সায় দিলেই কেবল প্রেম হতে পারে। এমন অনেক পুরুষ আছে যারা অনেক আকাঙ্ক্ষা কিংবা প্রচেষ্টা থাকা সত্ত্বেও সিঙ্গেল থেকে যান। এমন নয় যে তারা একেবারেই অযোগ্য। তাদের থেকে তুলনামূলক কম যোগ্য ছেলেদেরও ঠিকই প্রেম হয়ে যাচ্ছে, কিন্তু তাদের আর প্রেমে জড়ানো হয় না।

কোনো কোনো পুরুষের ক্ষেত্রে এমন হতে পারে যে তারা তাদের নিজের সিদ্ধান্তেই সিঙ্গেল থাকে। তারা প্রেম-ভালোবাসা থেকে দূরে থাকতে চান। তাদের কথা ভিন্ন। কিন্তু যারা সিঙ্গেল থাকতে চাইছে না কিন্তু সিঙ্গেল থাকতে হচ্ছে, তাদের ক্ষেত্রে বিষয়টি আসলে কী? কীসে বা কোথায় সমস্যা হচ্ছে তা জানতে পারলে সমাধানও সহজ হবে। নিজের দুর্বলতাগুলো খুঁজে বের করে তা কাটিয়ে উঠতে পারলে প্রেম এসে ধরা দেবে নিজ থেকেই। জেনে নিন কেন কিছু পুরুষেরা সিঙ্গেল থাকে-

 

পরিপাটি না থাকার কারণে

বেশিরভাগ মেয়ে পরিপাটি থাকাটা পছন্দ করলেও ছেলেদের ক্ষেত্রে ঘটে ভিন্ন। অধিকাংশ ছেলেই পরিপাটি থাকাকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবে না। তারা একই পোশাক দিনের পর দিন পরতেও অসুবিধা বোধ করেন না। বাহ্যিক সৌন্দর্যের বিষয়টি তাদের মাথায় থাকে না। এটি গুরুতর কোনো সমস্যা না হলেও এ ধরনের ছেলেদের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে আগ্রহ পায় না মেয়েরা। তাই সিঙ্গেল থাকতে না চাইলে নিজেকে পরিপাটি করে তুলুন।


সবজান্তা ভাব

অধিকাংশ ছেলেই নিজেকে সবজান্তা হিসেবে ভাবতে পছন্দ করে। তারা সব সময় অন্যদের বোঝাতে চায় যে তারা সব বিষয়ে অনেক জানে। কিন্তু তা বাস্তব নয়। একজন মানুষের কখনো সব বিষয়ে সমান জ্ঞান বা দক্ষতা থাকে না। তাই সবজান্তা ভাব না নেওয়াই ভালো। কোনো বিষয়ে না জানলে বিনয়ের সঙ্গে জানিয়ে দেওয়া ভালো। নিজের সীমাবদ্ধতা স্বীকার করা একটি বড় গুণ। আপনার এই গুণ দেখেই মেয়েরা প্রেমে পড়তে পারে!

 

নিজের সম্পর্কে বাড়িয়ে বলা

হতে পারে আপনি অনেক ভালো একজন মানুষ। কিংবা আপনার জীবনে অনেক অর্জন আছে। কিন্তু সেসবের গল্প বারবার করতে যাবেন না। এতে অন্যরা বিরক্ত হতে পারে। আপনি অবশ্যই নিজেকে নিয়ে ভাববেন তবে তা অন্যের কাছে প্রকাশ করার দরকার নেই। সব সময় নিজেকে নিয়ে বলতে থাকলে মেয়েরা বিরক্ত হয়ে মুখ ফিরিয়ে নেবে। তাই নিজের সম্পর্কে সব সময় বাড়িয়ে বাড়িয়ে বলার অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিন।

 

নেশায় আসক্ত হলে

নেশায় আসক্ত মানুষকে কেউ পছন্দ করে না। তার কাছের মানুষেরা একটা সময় দূরে সরে যেতে থাকে। কারণ সে আর তখন স্বাভাবিক মানুষ থাকে না। নেশা করার কারণে পরিণত হয় অস্বাভাবিক একজনে। বিষয়টি লুকিয়ে রাখতে চাইলেও একটা সময় সামনে আসেই। তাই যেসব পুরুষ নেশায় আসক্ত তাদের প্রেম হয় না বা হলেও তা টেকে না।

 

নারীর প্রতি সম্মান না থাকা

অনেক পুরুষ নারীকে যথেষ্ট সম্মান করতে জানে না। তারা নারীর প্রতি নানা ধরনের অসম্মানমূলক আচরণ প্রকাশ করে। নারীকে ছোট করে কথা বলে। এ কারণে কোনো মেয়ে তাদের মন থেকে ভালোবাসতে পারে না। যখন কোনো পুরুষ নারীকে সম্মান দিয়ে কথা বলে, তখন খুব স্বাভাবিকভাবেই তার প্রতি মেয়েরা আকৃষ্ট হয়।

আমারসংবাদ/আরইউ

Link copied!