Amar Sangbad
ঢাকা শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪,

বাংলাদেশ বিমানের লন্ডনগামী ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ বুলগেরিয়ায়

সাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া

ডিসেম্বর ৩, ২০২৩, ১১:৩৪ এএম


বাংলাদেশ বিমানের লন্ডনগামী ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ বুলগেরিয়ায়

বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের লন্ডনগামী একটি ফ্লাইট বুলগেরিয়ায় জরুরি অবতরণ করেছে। উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দেয়ায় একজন যাত্রীর জীবনরক্ষায় বিমানটি জরুরি অবতরণ করে। যাত্রীকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য বুলগেরিয়ার সোফিয়া ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে মেডিক্যাল ইমার্জেন্সি ঘোষণা করে জরুরি অবতরণ করে ফ্লাইটটি।

পরবর্তীতে সেই যাত্রীকে চিকিৎসার জন্য বুলগেরিয়ার একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। ১লা ডিসেম্বর সিলেট থেকে লন্ডনগামী ফ্লাইটে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, গত ১লা ডিসেম্বর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি ২০১ ফ্লাইটটি সিলেট থেকে লন্ডনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। ফ্লাইটের মধ্যে একজন যাত্রীর হঠাৎ উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দেয়। ৮৪ বছর বয়সী ওই যাত্রী সিলেট থেকে লন্ডনের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছিলেন। তার কাছে ফিট টু ফ্লাই মেডিক্যাল সার্টিফিকেট ছিল।

কেবিন ক্রুরা সেই যাত্রীর অসুস্থতার বিষয়টি ফ্লাইটের ক্যাপ্টেনকে জানান। পরে ফ্লাইটের মধ্যে কোনো ডাক্তার আছেন কি না জানতে ককপিট থেকে সেই ফ্লাইটের পাইলট ইন কমান্ড (পিআইসি) ক্যাপ্টেন ইশতিয়াক হোসেন ঘোষণা করেন। ক্যাপ্টেন ইশতিয়াক বিমানের চিফ অব প্লানিং অ্যান্ড শিডিউলিং। সেই ফ্লাইটে সেকেন্ড ক্যাপ্টেন ছিলেন ক্যাপ্টেন এনাম, তিনি বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেইফটি।

সেই ফ্লাইটে থাকা একজন চিকিৎসক যাত্রী ছিলেন, তিনি অসুস্থ যাত্রীকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেন। ফ্লাইটের মধ্যে অসুস্থ যাত্রীকে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন দেয়া হয়। একই সঙ্গে চিকিৎসক যাত্রীর পরামর্শে অন্যান্য প্রয়োজনীয় ওষুধ প্রদান করা হয়। তারপরও যাত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। তখন চিকিৎসক যাত্রী ক্যাপ্টেনকে জানান, অসুস্থ যাত্রীকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিতে হবে।

ক্যাপ্টেন ইশতিয়াক যাত্রীর জীবন রক্ষার্থে ফ্লাইটটি বুলগেরিয়ার রাজধানী সোফিয়াতে অবস্থিত সোফিয়া ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে মেডিক্যাল ইমার্জেন্সি ঘোষণা করে জরুরি অবতরণ করেন।

সেই ফ্লাইটের পাইলট ইন কমান্ড (পিআইসি) ক্যাপ্টেন ইশতিয়াক গণমাধ্যমকে জানান, ফ্লাইটের মধ্যে চিকিৎসক যখন জানান, অসুস্থ যাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হবে তখনই আমরা ফ্লাইটটি ডাইভার্ট করে নিকটতম এয়ারপোর্টে ল্যান্ড করানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি। সোফিয়া ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের এটিসি‍‍`র সাথে যোগাযোগ করে মেডিক্যাল ইমার্জেন্সি ঘোষণা করি। ফ্লাইট ডাইভার্ট করে সোফিয়া ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে ২৫ মিনিটের মধ্যে অবতরণ করি। সোফিয়া এয়ারপোর্টের ডাক্তার ফ্লাইট ডাইভার্ট করে সময়মতো রোগীকে আনায় আমাদের প্রশংসা করেন।

অসুস্থ যাত্রীকে সোফিয়া এয়ারপোর্টে নামিয়ে হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে অন্য যাত্রীদের নিয়ে বিমানের সেই ফ্লাইট ৩ ঘণ্টা বিলম্বে লন্ডনের হিফ্রো এয়ারপোর্টে পৌঁছায়।

এআরএস

Link copied!