Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

আ. লীগের পরিণতি শ্রীলঙ্কার চেয়েও খারাপ হবে: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

মে ১০, ২০২২, ১১:০৬ পিএম


আ. লীগের পরিণতি শ্রীলঙ্কার চেয়েও খারাপ হবে: ফখরুল
ফাইল ছবি

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের পরিণতি সংগ্রামরত শ্রীলঙ্কার চেয়েও খারাপ হবে।

মঙ্গলবার (১০ মে) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, তাদের (বর্তমান সরকারের) অবস্থা শ্রীলঙ্কার চেয়েও খারাপ হবে। শ্রীলঙ্কার লোকেরা (শাসক দলের লোকেরা) নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে, আর তারা (আ.লীগ নেতারা) বঙ্গোপসাগরে ঝাঁপ দেবে।

তিনি বলেন, শ্রীলঙ্কার বর্তমান পরিস্থিতি থেকে এই সরকারের শিক্ষা নিয়ে লাভ হবে না। কারণ শিক্ষা নিতে জানে না তারা। তাহলে এই ১০ বছরে শিক্ষা নিতে পারত।’

সোমবার গভীরতর অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবিলায় গণ অসন্তোষের মুখে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে পদত্যাগ করেছেন।

ফখরুল বলেন, সোমবার রাতে তাদের দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিএনপিকে নিয়ে আসা এবং তাতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

দলের অবস্থান পুনরায় স্পষ্ট করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বর্তমান ‘অবৈধ’ সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না।

এই বিএনপি নেতা বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হবে না। এই সরকারকে ক্ষমতা ছাড়তে হবে এবং নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের পর নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হবে।

তিনি বলেন, তাদের স্থায়ী কমিটিও মনে করে জাতীয় নির্বাচনে ভোটের জন্য ইভিএম গ্রহণযোগ্য না।

প্রধানমন্ত্রী কীভাবে ৩০০ আসনে ইভিএম ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নেন তা নিয়ে প্রশ্ন করে ফখরুল বলেন, ইভিএম ব্যবহার করবে কি না, সে সিদ্ধান্ত নেয়ার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। এতেই বোঝা যাচ্ছে সরকার নির্বাচনী প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করছে।

তিনি বলেন, তাদের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ভোজ্যতেলের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি এবং বাজারে সয়াবিন তেলের কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টির জন্য সরকারকে দায়ী করা হয়েছে।

এই বিএনপি নেতা বলেন, ‘বৈঠকে মনে করা হয় সরাসরি সরকারের মদদপুষ্ট অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের সদস্যদের সুবিধা দিতে (সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর) সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

ফখরুল বলেন, সরকারের দুর্নীতি ও ভুল নীতির কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় সব পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় মানুষ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার জন্য বিএনপির স্থায়ী কমিটি অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছে।

ফখরুল বলেন, তাদের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সাজাপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের বিদেশ সফরে বিস্ময় প্রকাশ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, এই ঘটনা প্রমাণ করেছে যে সমস্ত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে রাজনীতিকরণ করা হয়েছে।

আমারসংবাদ/এমএস