Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯

শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ে শোক দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগস্ট ১৫, ২০২২, ০৭:২৬ পিএম


শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ে শোক দিবস পালিত

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছে রাজধানীর শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়।

সোমবার (১৫ আগস্ট) দিবসটি উপলক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটিতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। দিনের শুরুতে প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডির সভাপতি ((ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক) রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু মুর‌্যালে দোয়া-মোনাজাতের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু করেন।

এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে আগেই শিক্ষার্থীদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয় গতকাল। একই সময়ে বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন ও কীর্তির ওপর আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আয়োজন শেষে মহাবিদ্যালয়ের মূল ফটকে দুস্থদের মাঝেও খাবার বিতরণ করা হয়।

এছাড়াও ১৫ আগস্ট উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটিও সকল শিক্ষকদের উপহার দেন রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ।

আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন ও কীর্তির ওপর আলোচনা করেন প্রধান অতিথি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকার সচিব আজাদ হোসেন চৌধুরী।

তিনি তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর জীবনী ও সংগ্রাম নিয়ে আলোকপাত শেষে স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে খুনের ঘটনায় জড়িতদের বিচার করতে হবে বলে দাবি জানান। 

এরপর বক্তব্য রাখেন, শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের গভর্নিং বডির সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অমর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসের এক ঘৃণ্য দিন। 

এদিনেই ঘাতকের নির্মম বুলেটে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে শাহাদত বরণ করতে হয়। তাকে হত্যার মাধ্যমে জাতির ইতিহাসকে উল্টোপথে নেয়ার অপচেষ্টা চালানো হয়। 

খন্দকার মোশতাকের বিষয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার কন্যাদের বলেছিলেন- যখন আমি থাকবো না তখন তোমরা মোশতাকের কাছে যাবে। এতোটা অগাদ বিশ্বাস ছিল তার প্রতি। 

সেই মোশতাকই জাতির পিতাকে হত্যার নীলনকশা প্রণয়নসহ বাস্তবায়ন করে। এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আদর্শিত দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শিক্ষা খাতসহ বিভিন্ন খাতে উন্নয়ন বিষয়ে আলোচনা করেন।

রিয়াজ উদ্দিন বলেন, বঙ্গববন্ধুও শিক্ষাখাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছিলেন। শিক্ষাখাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিয়ে তিনি দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন ঘটাতে চেয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সফল বাস্তবায়ন এবং তার অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে আরও বক্তব্য রাখেন, বিশেষ অতিথি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকার পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর আবুল বাশার, কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর এটিএম মোয়াজ্জেম হোসেন। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন, শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রদ্যুৎ কুমার ভদ্র। এসময় সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবকরাও উপস্থিত ছিলেন।


আমারসংবাদ/টিএইচ

Link copied!