Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

বিএনপির সমাবেশে সহিংসতার আশঙ্কা নাই: বুলু

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডিসেম্বর ১, ২০২২, ০৬:৪৫ পিএম


বিএনপির সমাবেশে সহিংসতার আশঙ্কা নাই: বুলু

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, ঢাকার সমাবেশে নাশকতার বা কোনো ধরনের সহিংসতার আশঙ্কা করছি না। তবে এর বাইরে অন্য কেউ যদি নাশকতা করে বা করার চেষ্টা করে সেটা পুলিশের দায়িত্ব। আমাদের পক্ষ থেকে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির প্রস্তুতি নিচ্ছি। এর আগে আমরা সারাদেশে আটটি সমাবেশ করেছি। কোথাও কোনো সহিংসতা হয়নি। ঢাকাতেও হবে না।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে পুলিশ সদর দপ্তরে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বুলু।

সমাবেশের স্থান বিষয়ে জানতে চাইলে বুলু বলেন, আমরা স্থান নির্ধারণ নিয়ে আমাদের স্ট্যান্ড জানিয়েছি। বৈঠকে বিএনপির সমাবেশ নিয়ে তারা (পুলিশ) কথা বলেছেন। আমরা বলেছি, আমরা সমাবেশ পল্টনে করতে চাই। তারা বলছেন, আপনারা সোহরাওয়ার্দীতে করেন।

বরকত উল্লাহ বুলু জানান, আইজিপি, পুলিশ কমিশনারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমরা দীর্ঘ এক ঘণ্টা বৈঠক করেছি। আমরা দেশের সার্বিক পরিস্থিতি, গায়েবি মামলা, বাধা-হামলার ঘটনা, আওয়ামী লীগের বাধাসহ নানা বিষয় তুলে ধরেছি।

এর আগে বিএনপির চার সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বরকত উল্লাহ বুলু। দুপুর সোয়া ২টার দিকে সেখান থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয় বিএনপি প্রতিনিধি দল। চার সদস্যের বিএনপির প্রতিনিধি দলের অন্যরা হলেন- দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী এবং আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

গায়েবি মামলার বিষয়ে বুলু বলেন, আমরা গায়েবি মামলার কপি পুলিশ প্রধানকে দিয়েছি। তিনি (আইজিপি) বলেছেন খতিয়ে দেখবেন। আমরা বলে এসেছি, একই মামলায় যুবলীগের নেতা বাদী, পুলিশও বাদী। এটা তো হয় না। এটাই তো প্রমাণ করে গায়েবি মামলা।

বিএনপি তাদের দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তি, জ্বালানি তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, দলীয় কর্মসূচিতে গুলি করে নেতাকর্মীদের হত্যার প্রতিবাদ এবং নির্বাচনকালীন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে বিভাগীয় (দলের সাংগঠনিক বিভাগ) পর্যায়ে সমাবেশ করছে বিএনপি।

চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর, বরিশাল, ফরিদপুর, সিলেট ও কুমিল্লায় বিভাগীয় সমাবেশ শেষ করেছে দলটি। আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে এবং সবশেষ ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় মহাসমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এই কর্মসূচি।

ঢাকায় নয়াপল্টনে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে গত ২০ নভেম্বর ডিএমপির কাছে আবেদন করে বিএনপি। যার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ২৬টি শর্তে অনুমতি দেয় পুলিশ। তবে নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে অনড় বিএনপির নেতারা।

এবি

Link copied!