Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ২৫ মে, ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদে দুই কলেজের সংঘর্ষ

নুর মোহাম্মদ মিঠু 

নুর মোহাম্মদ মিঠু 

মে ১৫, ২০২২, ১২:২২ এএম


উত্ত্যক্তের প্রতিবাদে দুই কলেজের সংঘর্ষ

অধ্যয়নের চেয়ে সংঘর্ষেই যেন বেশি মনোযোগী ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা। কয়েকদিন পরপর ব্যবসায়ী, অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী কিংবা বাসের চালক-হেলপারের সঙ্গে তুচ্ছ কারণেও সংঘর্ষে জড়াচ্ছে শিক্ষার্থীরা। রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা তো রয়েছেই।

গেল রমজানেও নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কয়েকদিন ব্যাপী সংঘর্ষ ও দুইজন নিহতের ঘটনা ঘটে। তারও কদিন আগে সংঘর্ষ হয় পার্শ্ববর্তী টিচার্স ট্রেনিং কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গেও। 

এসব ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই গতকাল ফের আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা। পুলিশের হস্তক্ষেপে গতকালের সংঘর্ষ নিবৃত করা গেলেও সংঘর্ষের নেপথ্যের সঠিক কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ। 

তবে ঢাকা কলেজ ও আইডিয়াল কলেজের একাধিক শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আইডিয়াল কলেজের এক ছাত্রের বান্ধবীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদেই বেলা ১১টার দিকে সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার আইডিয়াল কলেজের এক ছাত্র তার বান্ধবীকে নিয়ে নিউমার্কেট এলাকায় যায়। সেখানে ওই ছাত্রের সামনেই তার বান্ধবীকে উত্ত্যক্ত করে ঢাকা কলেজের একাদশ শাখার কয়েকজন শিক্ষার্থী। বান্ধবীকে উত্ত্যক্তের প্রতিশোধ নিতেই গতকাল আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা ঢাকা কলেজের উত্ত্যক্তকারী শিক্ষার্থীদের খুঁজতে যায়। 

খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে মুখোমুখি অবস্থায় ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা হয় আইডিয়ালের শিক্ষার্থীদের। কথা বলার সময় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দেয়। ধাওয়ার খবর পেয়ে আইডিয়ালের শিক্ষার্থীরাও জড়ো হয়ে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের পাল্টা ধাওয়া করে। ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার মধ্যেই দুই কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে ঢাকা কলেজের পাঁচ শিক্ষার্থী আহতের খবর জানা গেলেও আইডিয়াল কলেজের ঠিক কতজন আহত হয়েছে তা জানা যায়নি। 

সংঘর্ষের বিষয়ে জানতে চাইলে কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিতোষ চন্দ্র আমার সংবাদকে বলেন, দুই কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। 

সংঘর্ষের কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, দুই কলেজের দুই শিক্ষার্থী একই এলাকার বলে জানতে পেরেছি। এলাকারই কোনো একটি বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যকার সংঘর্ষ দুই কলেজে ছড়িয়ে পড়ে। তবে এ ঘটনায় জিডি কিংবা অভিযোগ হয়নি। সংঘর্ষে গুরুতর আহত ঢাকা কলেজের এক শিক্ষার্থী জানায়, আমি টাইফয়েডের রোগী। দীর্ঘদিন পর আজকেই কলেজে এসেছি। বাসায় ফেরার পথে আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা ধাওয়া দিলে আইডিয়াল কলেজের গলিতে ঢুকে পড়ি। এসময় বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আমাকে টেনে নিয়ে কলেজের গেটে মারধর করে। এসময় হাত-পা থেঁতলে যায়। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত পাই। 

আহত অপর এক শিক্ষার্থী জানান, আমি সায়েন্স ফেস্টের জন্য যাওয়ার সময় আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা আমাকে ল্যাব এইডের সামনে ধরে ফেলে। ওরা আমাকে কলেজের ভেতরে নিয়ে মারধর করে। আমি হাত, পা ও মাথায় আঘাত পাই। এছাড়া এ ঘটনায় ঢাকা কলেজের আরও তিন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 

সংঘর্ষের বিষয়ে আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার আমাদের এক ছাত্রের বান্ধবীকে উত্ত্যক্ত করে ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী। সেই সূত্র ধরে ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলার একপর্যায়ে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা আমাদের শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দেয়। পরে সংঘর্ষ বাঁধে। 

ঢাকা কলেজের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কমিটির সদস্য ও পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষক আলতাফ হোসেন জানান, এসব সমস্যা সমাধানের জন্য ঢাকা কলেজ, আইডিয়াল কলেজ ও সিটি কলেজের শিক্ষকদের নিয়ে একটি পর্যবেক্ষণ কমিটি ছিল। যার কার্যকারিতা বেশ কিছুদিন স্থবির ছিল। সংঘর্ষের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ (রোববার) ঢাকা কলেজে এই কমিটির বসার কথা রয়েছে। পরবর্তীতে যাতে এমন ঘটনা না ঘটে সেজন্য কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়া হবে। 

ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর এ টি এম মইনুল হোসেন জানান, আসলে ঘটনাটি উদঘাটনের চেষ্টা করছি। আমাদের নিবিড় কমিটি এটা নিয়ে কাজ করছে। যারা সরাসরি জড়িত ছিল তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। জড়িতদের শোকজের নোটিস দেয়া হবে।