Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

‍‍`বাল্যবিয়ে বন্ধে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে‍‍`

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি

জুন ২৩, ২০২২, ০৩:১৫ পিএম


‍‍`বাল্যবিয়ে বন্ধে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে‍‍`

বাল্য বিয়ে ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধে সমাজের সকল সেক্টরকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। 

তিনি বলেন, বাল্যবিয়ে একটি সামাজিক ব্যাধি, বর্তমানে দেশে তুলনামূলকভাবে বাল্যবিয়ে কমলেও আশঙ্কা রয়েই গেছে। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য দরকার সমাজের মানুষদের মনমানসিকতার পরিবর্তন। 

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকালে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা এবং বাল্য বিবাহ রোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর রাঙ্গামাটি আয়োজিত মতবিনিময় সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মামুন, অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার সদর সদর সার্কেল মোঃ জাহিদুল ইসলাম,  রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমা বিনতে আমিন, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ পরিচালক হোসনে আরা বেগম, রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হক, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও প্রবীন সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সাবেক সদস্য নিরুপা দেওয়ান, রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম। 

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আরো বলেন, বাল্যবিয়ের কারণে কিশোরী মায়েরা কম ওজন এবং অপুষ্ট শিশু জন্ম দেন আর কিশোরী বয়সে বিয়ে হওয়ার কারণে তাদের পড়াশুনা ছেড়ে দিতে হয়। পরবর্তীতে তারা কর্মক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ে নারীর ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখার ক্ষেত্রেও পিছিয়ে পড়ে এই মায়েরা। আর নিজ গৃহে নির্যাতনের শিকার হন অর্থনৈতিক ও সামাজিক এবং পারিবারিকভাবে তাদের সম্ভাবনার মৃত্যু ঘটে। তাই আমরা যারা এই সমাজের বিভিন্ন দায়িত্বে আছি সবাই যদি বাল্য বিয়ে প্রতিরোধের বিষয়ে ভূমিকা রাখি বা জনসচেতনা তৈরী করি তা হলে বাল্য বিয়ের প্রবণতা সেটা কমে আসবে।

এসময় সভায় রাঙ্গামাটি পৌর কাউন্সিল, মসজিদের ইমাম, বিবাহ রেজিস্ট্রাররা সহ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন কর্মকর্তা, সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। পরে সভায় রাঙ্গামাটিতে বাল্যবিয়ে রোধে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

আমারসংবাদ/এআই