Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

আখাউড়ায় নারীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

মোঃ সাইফুল ইসলাম, আখাউড়া

মোঃ সাইফুল ইসলাম, আখাউড়া

নভেম্বর ২৮, ২০২২, ০২:৩০ পিএম


আখাউড়ায় নারীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেপ্তার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে এক নারীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে রায়হান ভূঁইয়া নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৮ নভেম্বর) দিবাগত রাতে আখাউড়া থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। সে উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের আজমপুর গ্রামের বাসিন্দা ইয়ার হোসেন ভূঁইয়ার ছেলে।

আখাউড়া থানায় দায়েরকৃত মামলার এজাহারে ও ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, স্বামী মাদকাসক্ত হওয়ায় দুই সন্তান নিয়ে প্রায় ৪বছর আগে আজমপুর পিত্রালয়ে বসবাস করে আসছে। তার বাবা অসচ্ছল হওয়ায় পাশের বাড়ির বাসিন্দা রায়হানের বাড়িতে ভুয়ার কাজ করতো।

এক পর্যায়ে রায়হানের কু-নজরে পড়েন ওই নারী। ওই নারীর রূপ যৌবনে আকৃষ্ট হয়ে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। তাতে ওই নারী রাজি না হলে রায়হান ক্ষিপ্ত হয়ে তার শিশু সন্তান হত্যা করে লাশ গুম করবে বলে ভয় দেখান রায়হান।

ওই নারী বলেন, পরে কৌশলে আত্নীয় ও বন্ধু বান্ধবের বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে নিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে রায়হান।পরবর্তীতে রোববার দুপুরে আজমপুর গ্রামের লোকমান মিয়ার বাড়িতে ডেকে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে এবং সেই ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে গোপনে ধারণ করে রায়হান। ধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ওই নারীর কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেন সে।

এসময় তাদের দু‍‍`জনের মধ্যে ভিডিও মুছে ফেলা নিয়ে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে ওই নারীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন চলে আসলে ধর্ষক রায়হান দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় বিকালে তিনি বাদী হয়ে আখাউড়া থানায় একটি মামলা করেন।

আখাউড়া থানার ওসি আসাদুল ইসলাম জানান, অভিযুক্ত বখাটে রায়হানকে রাতেই অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

এআই

Link copied!