Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

ফরিদপুরে মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুর প্রতিনিধি

জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ০৭:৫৪ পিএম


ফরিদপুরে মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পৌরসদরের কাপুড়িয়া সদরদী ও আলগী ইউনিয়নের সোনাখোলা গ্রামবাসীর মধ্যে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশসহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

দফায় দফায় চলা এ সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ ৫৪ রাউন্ড রাবার বুলেট, সাউন্ড গ্রেনেড ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। মঙ্গলবার(২৪ জানুয়ারি) দুপুর থেকে দফায় দফায় এ ঘটনা ঘটে।

ভাঙ্গা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জিয়ারুল ইসলাম এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে ভাঙ্গা পৌরসদরের কে এম কলেজ মাঠে পৌরসভার কাপুড়িয়া, সদরদী গ্রাম ও আলগী ইউনিয়নের সোনাখোলা গ্রামের যুবসংঘের উদ্যোগে ক্রিকেট খেলা শুরু হয়।

খেলা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়। পরে দুপুরের দিকে মাইকে ঘোষণা দিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়।পরে ফরিদপুর থেকে দাঙ্গা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আহতদেরকে উদ্ধার করে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে তাদের নাম ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়ারুল ইসলাম বলেন, ক্রিকেট খেলা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে প্রথমে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে দুপুরের দিকে মাইকে ঘোষনা দিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ সময় পুলিশের কয়েক জন সদস্যসহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হন।
আপাতত পরিস্থিতি শান্ত। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এআরএস
 

Link copied!