Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪,

টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ

১৩ মাসে ১১ বার শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার নির্বাচিত হলেন ফারহানা

আ. হামিদ মধুপুর (টাঙ্গাইল)

আ. হামিদ মধুপুর (টাঙ্গাইল)

জুন ১৩, ২০২৪, ০৮:২৬ পিএম


১৩ মাসে ১১ বার শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার নির্বাচিত হলেন ফারহানা

টাঙ্গাইল জেলায় সার্কেল অফিসার হিসেবে ১৩ মাসে ১১ বার শ্রেষ্ঠত্বের গৌরব অর্জন করছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (আইজিপি পদক প্রাপ্ত) ফারহানা আফরোজ জেমি।

তিনি টাঙ্গাইলের মধুপুর সার্কেলাধীন মধুপুর ও ধনবাড়ী থানায় বিগত ১৩ মাস যাবত দায়িত্ব পালন করছেন।

১৩ মাসে তিনি এমন অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জনের অধিকারিণী হয়েছেন। পুলিশ প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্ম বিশ্লেষণে এমন গৌরবের কৃতিত্ব অর্জন করেছেন মধুপুর সার্কেল অফিসার ফারহানা আফরোজ জেমি।

এ পুলিশ কর্মকর্তা মাগুরা জেলার কৃতি সন্তান। শিক্ষা জীবন শেষ করে ব্যাংকার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করলেও পরে পুলিশে যোগ দেন তিনি।

একান্ত আলাপকালে আমার সংবাদকে জানান, তিনি ২০১৭ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক হিসাবে রংপুর কর্মরত ছিলেন। পরবর্তীতে ৩৬তম বিসিএসে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে ২০১৮ সালে ৩ সেপ্টেম্বরে যোগদান করেন। প্রথমে তিনি গাজীপুর জেলা পুলিশের এএসপি ট্রাফিক ও পরে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশে এএসপি এসএসএফ হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

২০২৩ সালের ৮ এপ্রিল যোগদান করে সহকারী পুলিশ সুপার মধুপুর সার্কেল অফিসার হিসেবে তিনি কর্মরত আছেন।

ব্যক্তিজীবন

ফারহানা আফরোজ জেমি  ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিতা। তার  স্বামী শহিদুল ইসলাম টাঙ্গাই জেলাধীন সখিপুর উপজেলায় সাব রেজিস্ট্রার পদে কর্মরত আছেন। তিনি জমজ ২ কন্যা সন্তানের জননী।

টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপার (অ্যাডিশনাল ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) সরকার মোহাম্মদ কায়ছারের সভাপতিত্বে পুলিশ সুপারের কার্যালয় সম্মেলন কক্ষে ২০২৪ সালের জুন  মাসের মাসিক অপরাধ সভা গত সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, জঙ্গি দমন, অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, বিট পুলিশিং কার্যক্রম, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল, স্পর্শকাতর মামলার অগ্রগতি, জেলার গোয়েন্দা কার্যক্রম নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা জোরদার, সাইবার ক্রাইম মনিটরিং সেলের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের বিষয়সহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

এ সময় পুলিশ সুপার জনবান্ধব পুলিশিং নিশ্চিতকরণে সকলকে দেশপ্রেম, পেশাদারিত্ব, নিষ্ঠা ও সততার সাথে নিজ কর্তব্য পালনের মাধ্যমে সাধারণ জনগণের আস্থা অর্জন এবং বিট পুলিশিং কার্যক্রমের মাধ্যমে এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখা, মাদক, জঙ্গিবাদ ও চোরাচালানের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান জোরদার করার পাশাপাশি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল করার বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জদের বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেন।

২০২৪ সালের মে মাসের বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান ও অর্জন এবং চৌকস কার্য সম্পাদনের জন্য পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়ছার টাঙ্গাইল জেলার বিভিন্ন ইউনিটে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ভালো কাজের পুরস্কার স্বরূপ ক্রেস্ট প্রদান করেছেন।

এবারও মধুপুর ও ধনবাড়ী উপজেলার গর্ব, সৎ ও আদর্শবান পুলিশ অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মধুপুর সার্কেল ফারহানা আফরোজ জেমি মে মাসে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, মামলা তদন্ত ও সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে বিশেষ অবদানের জন্য টানা ১১ বারের মতো শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

তার এই বিশাল সাফল্যের জন্য মধুপুর সার্কেলের আওতাধীন মধুপুর ও ধনবাড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ, আলোকদিয়া ও অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ির আইসিসহ সকল ফোর্স আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এ সময় টাঙ্গাইল জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সকল থানার অফিসার ইনচার্জ, পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের বিভিন্ন পর্যায়ের পুলিশ অফিসাররা উপস্থিত ছিলেন।

ইএইচ

Link copied!