Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪,

বেলারুশে বিরোধী নেতার ১৫ বছরের জেল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার্চ ৭, ২০২৩, ০২:০৭ পিএম


বেলারুশে বিরোধী নেতার ১৫ বছরের জেল

বেলারুশের বিরোধী নেতা সভিয়াতলানা সিখানৌস্কায়াকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রদ্রোহ এবং ক্ষমতা দখলের ষড়যন্ত্রের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর দেশটির একটি আদালত সোমবার (৬ মার্চ) এই কারাদণ্ড দেন।

বেলারুশিয়ান এই বিরোধী নেতা বর্তমানে নির্বাসিত অবস্থায় রয়েছেন এবং তার অনুপস্থিতিতেই আদালত এই রায় ঘোষণা করে। অবশ্য বেলারুশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা চালানোর জন্যই এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন সভিয়াতলানা সিখানৌস্কায়া। মঙ্গলবার (৭ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৪০ বছর বয়সী সিখানৌস্কায়া ইংরেজির সাবেক একজন শিক্ষক। ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার পর তিনি প্রতিবেশী লিথুয়ানিয়ায় পালিয়ে যান। ওই নির্বাচনে লুকাশেঙ্কো জয়ী হয়েছিলেন।

অবশ্য সিখানৌস্কায়া-সহ বেলারুশের অন্য বিরোধীরা সেই সময় বলেছিলেন, লুকাশেঙ্কোকে জয়ী করার জন্য নির্বাচনের ফলাফলে কারচুপি করা হয়েছে। আর তাই ভোটের আনুষ্ঠানিক ফলাফল সামনে আসার পর সেসময় দেশটির মানুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয় এবং এর জেরে ব্যাপক প্রতিবাদের সূত্রপাত হয়।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র লুকাশেঙ্কো বিক্ষোভকারীদের সেসময় ওপর নৃশংস দমনপীড়ন চালান, একইসঙ্গে বিরোধীদের বিরুদ্ধে সরকারকে উৎখাতের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনেন। সেসময় বেলারুশের প্রধান বিরোধী ব্যক্তিত্ব ও কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয় এবং অনেকে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায়।

আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো প্রায় ৩০ বছর ধরে বেলারুশ শাসন করেছেন। গণবিক্ষোভের সময় তার সরকার ৩৫ হাজারেরও বেশি লোককে আটক করে।

আল জাজিরা বলছে, বেলারুশের বিরোধী দলের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী সিখানৌস্কায়াকে চলতি বছরের জানুয়ারিতে তার অনুপস্থিতিতে বিচারের মুখোমুখি করে দেশটির কর্তৃপক্ষ। এসময় সিখানৌস্কায়া-সহ অন্যান্য বিরোধী কর্মীদের বিরুদ্ধে অসাংবিধানিক উপায়ে ক্ষমতা দখলের চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়।

বেলারুশের রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা বেল্টা জানিয়েছে, মিনস্কের একটি আদালত সোমবার সিখানৌস্কায়াকে ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। একই আদালত বেলারুশিয়ান বিরোধী কাউন্সিলের পাভেল লাতুশকোকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড এবং একই চক্রান্তের অংশ হওয়ার জন্য দোষী সাব্যস্ত অন্য ৩ কর্মীকে ১২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে বলে বেল্টা রিপোর্ট করেছে।

২০২০ সালের আগস্টে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পরে তারা সবাই বেলারুশ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন।

তবে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ার পর এই রায়ের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন সভিয়াতলানা সিখানৌস্কায়া। টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় তিনি বলেছেন, ‘১৫ বছরের কারাদণ্ড। বেলারুশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা চালানোয় এভাবেই সরকার আমার কাজকে ‘পুরস্কৃত’ করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিন্তু আজ আমি আমার নিজের সাজা নিয়ে ভাবছি না। আমি হাজার হাজার নিরপরাধের কথা ভাবছি, যারা আটক রয়েছেন এবং প্রকৃতপক্ষে কারাগারে সাজাপ্রাপ্ত অবস্থায় রয়েছেন। তাদের প্রত্যেকের মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত আমি থামব না।’

এআরএস

Link copied!