Amar Sangbad
ঢাকা সোমবার, ২০ মে, ২০২৪,

আমি নির্বাচিত না হলে ‘রক্তগঙ্গা’ বইয়ে দেব: ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার্চ ১৭, ২০২৪, ১২:০১ পিএম


আমি নির্বাচিত না হলে ‘রক্তগঙ্গা’ বইয়ে দেব: ট্রাম্প

গেল মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প পরাজিত হওয়ার পর দেশটিতে ব্যাপক সহিংসতা হয়। তবে এবার নির্বাচনের আগেই ভয়াবহ হুমকি দিলেন ট্রাম্প। তার দাবি, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি নির্বাচিত না হলে ‘রক্তগঙ্গা’ বইয়ে দেব।

শনিবার (১৬ মার্চ) ওহাইওতে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘৫ নভেম্বর তারিখটা মনে রাখুন। আমার বিশ্বাস, এই দিনটা আমাদের দেশের ইতিহাস হতে চলেছে।’

ট্রাম্প আরও বলেন, তিনি যদি আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী না হন তবে এর অর্থ হবে আমেরিকান গণতন্ত্রের সম্ভাব্য সমাপ্তি বা অবসান।

তিনি বলেন, ‘আমরা যদি এই নির্বাচনে না জিততে পারি, আমি মনে করি না যে আপনি এই দেশে আরেকটি নির্বাচন করতে পারবেন।’

আমদানি করা গাড়ির ওপর শুল্ক বসানো এবং মার্কিন অটো শিল্পের জন্য বিদেশি প্রতিযোগিতার বিষয়ে নিজের বক্তৃতার একটি অংশের মাঝখানে ট্রাম্প ঘোষণা করেন, ‘আমি যদি নির্বাচিত না হই, তবে এটি সারা দেশে “রক্তগঙ্গা” বয়ে যাবে।’

নিউইয়র্ক টাইমসের একজন সাংবাদিক ট্রাম্পের প্রচারণা দলের কাছে ‘রক্তগঙ্গা’ বলতে ট্রাম্প কি বোঝাতে চাচ্ছেন জানতে চাইলে তারা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ একটি পোস্টের দিকে ইঙ্গিত করেছে। যেখানে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের ‘রক্তগঙ্গা’ মন্তব্যটি মার্কিন অটো শিল্প এবং অর্থনীতি সম্পর্কে আলোচনার মধ্যে এসেছে।

এদিকে ট্রাম্পের ‘রক্তগঙ্গা’ মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে বাইডেনের প্রচারণার মুখপাত্র জেমস সিঙ্গার ট্রাম্পের ‘চরমপন্থা’, ‘প্রতিশোধের প্রতি তার তৃষ্ণা’ এবং তার ‘রাজনৈতিক সহিংসতার হুমকির’ নিন্দা করেন।

ট্রাম্প কৃষ্ণাঙ্গ এবং হিস্পানিকদের কাছেও ভোট আবেদন করে বলেন, ‘নভেম্বরের নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে মূল ভূমিকা পালন করবেন আপনারাই’।

ট্রাম্প তার একটি কেন্দ্রীয় প্রচারাভিযানের থিম উদ্ধৃত করেছেন, সংখ্যালঘু ভোটারদের কাছে তার আবেদনে বাইডেন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে অনেক অবৈধ অভিবাসী মার্কিন-মেক্সিকো সীমান্ত অতিক্রম করেছে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের নভেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচনে বাইডেনের বিরুদ্ধে ট্রাম্পই রিপাবলিকান প্রার্থী হতে চলেছেন বলে অনেক আগে থেকেই ধারণা করা হচ্ছে। তবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে একাধিক ফৌজদারি মামলা রয়েছে। ফলে তার জনপ্রিয়তায় কিছুটা ভাটা পড়েছিল। তবে একের পর এক রাজ্যের প্রাইমারিতে জয়ের পর রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেকটাই এগিয়ে আছেন ট্রাম্প।

এদিকে আদালতে একাধিক মামলা চলছে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে ক্যাপিটলে দাঙ্গায় উসকানি ও ২০২০ সালের নির্বাচনে ফল পাল্টানোর চেষ্টা এবং রাষ্ট্রীয় গোপন নথি সংরক্ষণের মতো অভিযোগও আছে। আদালত যদি কোনো কারণে ট্রাম্পের প্রার্থিতা স্থগিত করে দেয়, তাহলে পরিস্থিতি তার উল্টোটাও হতে পারে।

বিআরইউ

Link copied!