Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

যে কারণে খাবেন ডিমের কুসুম

নিজস্ব প্রতিবেদক

জানুয়ারি ২০, ২০২৩, ০৫:১৪ পিএম


যে কারণে খাবেন ডিমের কুসুম

প্রতিদিন একটা ডিমের কুসুম খাওয়া যেতে পারে, তার বেশি নয়। শরীরের জন্য খুব উপকারী ডিম। ডিমের মধ্যে থাকে একাধিক পুষ্টি।

সকালের খাবারে অনেক বছর আগ থেকেই ডিম খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। তবে ইদানিং সেটা অনেক কমে গেছে। যারা ডায়েট করছেন বা স্বাস্থ্য সচেতন, তারা ডিম খেলেও তার সাদা অংশটি খান না।

অনেকেরই ধারণা আছে, কুসুম খাওয়া মানেই হার্টের সমস্যা তৈরি হওয়া। কোলেস্টেরল দু রকমের হয়ে থাকে। একটা ভালো আর আরেকটা খারাপ। শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়লে তখনই একাধিক জটিলতা তৈরি হয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ডিম স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। ডিমের মধ্যে রয়েছে প্রোটিন, ভিটামিন বি, এ, আয়রন, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস, ক্যালশিয়াম, সেলেনিয়াম, জিঙ্কসহ একাধিক উপাদান।

এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সের মতে, ডিম স্বাস্থ্যের জন্য একদমই ক্ষতিকর নয়। প্রোটিন আর ভিটামিনে সমৃদ্ধ হওয়ায় ডিম শরীরের জন্য খুবই ভালো। তবে কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে তবেই ডিম খেতে হবে।

যারা ডিম পছন্দ করেন বা যারা স্বাস্থ্য সচেতন তাদের মনে প্রথম প্রশ্ন আসে যে দিনের মধ্যে কয়টা ডিম খাওয়া যাবে। দিনে একটার বেশি ডিম নয়। খুব বেশি হলে ২টা পর্যন্ত খান। সেক্ষেত্রে ২টা কুসুম না খাওয়াই ভালো। তবে খাবারের মধ্যে সমতা রাখতে হবে। ডায়েট চার্ট বানিয়ে খাওয়াই ভালো।

এবি

Link copied!