community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪,

‘বিএনপি-জামায়াত দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়’

বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

বন্দর (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৩, ০৮:৪১ পিএম


‘বিএনপি-জামায়াত দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। আর সেই উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে বিএনপি ও জামায়াত উঠেপড়ে লেগেছে। তারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়। বিএনপি ও জামায়াতের নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে বন্দর উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশে এ কথা বলেন, বন্দর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার হাতেম হোসাইন।

মদনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আমান উল্লাহ আমানের সঞ্চালনায় সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন, বন্দর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার হাতেম হোসাইন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ চায় দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠা হোক। কিন্তু বিএনপি ও রাজাকার জামায়াত তারা দেশের উন্নয়ন চায় না। আর তাই তাদের উন্নয়ন সহ্য হয় না বিধায় এখন তারা আন্দোলন করছে। এর প্রতিবাদেই আমাদের এই শান্তি সমাবেশ।

খন্দকার হাতেম বলেন, যদি কোনো অশুভ শক্তি বন্দরে সৃষ্টি করতে চায়, তাহলে তাদেরকে দাতভাঙা জবাব দেয়া হবে। বিএনপি ও জামায়াতকে শক্ত হাতে প্রতিহত করতে আমরা যুবলীগের প্রতিটি কর্মী রাজপথে আছি এবং থাকবো ইনশাআল্লাহ। শান্তি সমাবেশ শেষ করে একটি মিছিল মদনপুর বাস স্ট্যান্ডে প্রদক্ষিণ করে পুনরায় উক্ত সভাস্থলে এসে শেষ হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সমাবেশে বন্দর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস আই জুয়েল, সিনিয়র সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, ধামগড় ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহম্মেদ, ধামগড় ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার ও যুবলীগ নেতা মনির হোসেন, মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এছহাক মিয়া, মদনপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাকিল ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা কামাল ভূঁইয়া, নাসিক ২৭নং ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের সভাপতি এবাদুল্লাহ মিয়া, মদনপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা রুবেল ভূঁইয়া, গাজী রাসেল, আমান উল্লাহ, বাপ্পি ভূঁইয়া, শাকিল মাহামুদ, নাজমুল হাসান, আশিকুর রহমান আশিক, ধামগড় ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা আনিসুর রহমান, নজরুল ইসলাম বাদশা, ফয়সাল আহমেদ হৃদয়, মুছাপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা আঃ হামিদ, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা আক্তার সজল, ইকবাল হোসেন প্রমুখ।

কেএস 

Link copied!