Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪,

৪ বছরেও মেরামত হয়নি ভেঙে পড়া সেতু

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি

জুন ২১, ২০২৪, ০৫:১০ পিএম


৪ বছরেও মেরামত হয়নি ভেঙে পড়া সেতু

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডে তেনাপচা মৌজায় পিয়ার আলী মৃধা পাড়ায় ভেঙে পড়া ব্রিজটি গত ৪ বছরেও মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। ঝুঁকিপূর্ণ ওই ব্রিজের উপর দিয়েই চলাচল করছে যানবাহন ও সাধারণ মানুষ। এতে করে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে ব্রিজটি ধসে জানমালের ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের বেইলি ব্রিজ থেকে আতর আলী চেয়ারম্যানের বাজার হয়ে রাজবাড়ী জেলা সদরে যেতে গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক। এ সড়কের ওই ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে করে জনসাধারণকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

জানা যায়, চার বছর আগে বন্যার পানির তীব্র স্রোতে ব্রিজের পার্শ্ববর্তী কয়েকটি বসতভিটা ও একটি কাঁচা রাস্তা খালে ধসে যায়। পরে ব্রিজটির নিচে ও পাশ থেকে মাটি সরে যাওয়ায় মাঝখান থেকে ভেঙে দেবে যায়।

সরেজমিনে পরিদর্শনকালে মো. জহিরুল কবিরাজ, হাবিবুর, শহিদ মেম্বারসহ প্রায় অর্ধশত মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, তিন বছর আগে বন্যায় এ ব্রিজটি ভেঙে পড়ে। তখন থেকে আমরা যাতায়াতে কষ্ট করি। এরপর বড় বড় সাহেবরা এসে মাপ ঝোপ করে নিয়ে গেছে। কিন্তু ব্রিজটি কবে মেরামত হবে তা কেউ বলতে পারে না। এই ব্রিজটি ভাঙা থাকায় অনেক দূর ঘুরে আমাদের মালামাল পরিবহণ করতে হয়।

দেবগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হাফিজুল ইসলাম বলেন, প্রায় ২০ বছর আগে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছিল। বর্তমানে ব্রিজটি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গেছে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ মন্ডল বলেন, ২০-২৫ বছর আগে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছিল। তবে সড়কটি এলজিইডির অধীনে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) কর্মকর্তা বিদ্যুৎ কুমার দাস জানান, বন্যায় ভেঙে পড়া ওই ব্রিজটি পুনঃনির্মাণের জন্য তৎকালীন কর্মকর্তা প্রস্তাব পাঠিয়েছিলেন। হয়ত পরবর্তী যোগাযোগ না করায় কাজটি পিছিয়ে আছে। কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে দ্রুত সময়ে ব্রিজটি পুনঃনির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইএইচ

Link copied!