Amar Sangbad
ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ, ২০২৪,

যুক্তরাষ্ট্রে আরও একটি সড়কের নামকরণ হলো ‘বাংলাদেশ এভিনিউ’

বাংলা প্রেস, নিউইয়র্ক

বাংলা প্রেস, নিউইয়র্ক

ডিসেম্বর ৬, ২০২৩, ১০:৩৮ এএম


যুক্তরাষ্ট্রে আরও একটি সড়কের নামকরণ হলো ‘বাংলাদেশ এভিনিউ’

বিজয়ের মাসে যুক্তরাষ্ট্রে আরও একটি সড়কের নামকরণ করা হয়েছে বাংলাদেশ এভিনিউ। স্থানীয় সময় রোববার (৩ ডিসেম্বর) পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের ডেলাওয়ার কাউন্টির মিলবোর্নের বাংলাদেশি সিটি মেয়র মাহবুবুল আলম তৈয়ব সড়কের নামফলক উম্মোচন করেন। এ সময় মিলবোর্ন সিটির ৫ বাংলদেশি কাউন্সিলম্যান প্রচুর সংখ্যক প্রবাসী উপস্থিত ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বাংলা সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস এ খবর জানিয়েছে।

পেনসিলভেনিয়া মিলবোর্ন বরোর বাংলাদেশি অধ্যুষিত মাকের্ট স্টীট্র এবং সেলারস এভিনিউ সংযোগস্থল (বর্তমানে যা সেলারস এভিনিউ নামে পরিচিত ছিল)-কে বাংলাদেশ এভিনিউ নামে নতুন নামকরণ করা হয়।

পেনসিলভেনিয়া প্রবাসী শিল্পী জলি দাসের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া আনুষ্ঠানে মেয়র মাহবুবুল আলম তৈয়ব সিটির সকল কাউন্সিলম্যানের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জানান বহুজাতিক এ সমাজে বিজয়ের মাসে ‘বাংলাদেশ এভিনিউ’ উদ্বোধনের পথ সুগম করার জন্যে। তিনি সামনের দিনগুলোতেও এলাকাবাসীর সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে আশা করেন। এ সময় পেনসিলভেনিয়া রাজ্যর গভর্নরের প্রতিনিধি হিসেবে রাজ্যর পলিসি অ্যান্ড প্ল্যানিং সেক্রেটারি আকবর হোসেন (তিনিও বাংলাদেশি আমেরিকান) মেয়র তৈয়বকে গভর্নরের পক্ষ থেকে বিশেষ সম্মাননা স্মারক হস্তান্তর করে বলেন, একটি রাস্তার নামকরণের মধ্যদিয়ে মূলত বহুজাতিক এ সমাজে আমরা আরো বড়কিছু করতে পারবো যদি ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারি। এই সড়কের নামকরণের মধ্যদিয়ে সেই অভিযাত্রা শুরু হলো।

এছাডাও অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্টেট সিনেটর টিম কিয়ার্নি, আপার ডারবি সিটির মেয়র (নির্বাচিত) এডোয়ার্ড ব্রাউনন, স্টেট রিপ্রেজেনটেটিভ জিনা কারী প্রমুখ। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আমিন রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহেরসহ অন্যান্য অঙ্গরাজ্য থেকে আগত অতিথি ও মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্বোধনী মঞ্চে আহবান করে বিশেভাবে সম্মাননা জানানো হয়।  এ ব্যাপারে বাংলাদেশি আমেরিকান কমিউনিটি ফোরাম অফ পেনসেলভেনিয়া (বিএসিএফ) প্রচার ও প্রচারনায় গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করেছে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশ নামে সড়কের নামকরণ দিন দিন বেড়েই চলছে। বিভিন্ন অঞ্চলে একের পর এক সড়কের নামকরণ করা হচ্ছে ‍‍`লিটল বাংলাদেশ‍‍` এবং বাংলাদেশ ব্লুভার্ড। এ নিয়ে ‍‍`বাংলাদেশ‍‍` নামে এখন পর্যন্ত পাঁচটি এলাকার নামকরণ করা হয়।

চলতি বছর স্বাধীনতা দিবসে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি সড়কের নামকরণ করা হয় ‍‍`বাংলাদেশ স্ট্রিট‍‍`। জ্যাকসন হাইটসের সেভেন্টি থার্ড স্ট্রিটে নানা বাংলাদেশি রেস্টুরেন্ট, ফার্মেসি এবং সংবাদপত্র কার্যালয়ের অবস্থান। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবসের দিন (২৬ মার্চ) এ সড়কের নতুন নাম রাখা হয় ‍‍`বাংলাদেশ স্ট্রিট‍‍`।

এর আগে ১০ মার্চ বাংলাদেশি অধ্যুষিত নিউ ইয়র্কের ওজন পার্কে ‘লিটল বাংলাদেশ ওয়ে’ নামে একটি সড়কের নামকরণ করেন নিউ ইয়র্ক সিটি কাউন্সিল। ঐদিন দুপুরে উক্ত সড়কের ‘নামফলক উন্মোচন’ ও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

গত বছর ২১ ফেব্রুয়ারি জ্যামাইকা এলাকার হিলসাইড এভিনিউ থেকে হোমলন এভিনিউ পর্যন্ত লিটল বাংলাদেশ এভিনিউ নামকরণ করা হয়। ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে জ্যামাইকায় নতুন পুন:নামকরণের রাস্তাটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়।

গত বছর (২০২২) ব্রুকলিনের বাংলাদেশি অধ্যুষিত চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড নামের সংযোগস্থলকে লিটল বাংলাদেশ নামকরণ করা হয়। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বুকে ছোট্ট বা লিটল বাংলাদেশের সংখ্যা দাঁড়ায় তিনটিতে এবং বাংলাদেশ এভ্যেনু ও ব্লুভার্ড নামেও রয়েছে বেশ কয়েকটি সড়কের নাম।

২০১০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের লস অ্যাঞ্জেলেস শহরের থার্ড স্ট্রিট ও আলেকজান্দ্রিয়া অ্যাভিনিউয়ের মাঝে অবস্থিত একটি এলাকাকে লস অ্যাঞ্জেলস শহর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ‍‍`লিটল বাংলাদেশ‍‍` নামে স্বীকৃতি দেয়। এটি শহরটিতে বসবাসকারী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্যক্তিদের প্রাণকেন্দ্র।

২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের প্যাটারসন সিটির ইউনিয়ন অ্যাভিনিউ সড়কের নাম পরিবর্তন করে ‘বাংলাদেশ বুলেভার্ড’ রাখা হয়। ২০১৯ সালের ২২ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে উক্ত সড়কে নামফলক লাগিয়ে বাংলাদেশ বুলেভার্ড করা হয়।

এআরএস

Link copied!