community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪,

তিন মাস নিষিদ্ধ অভিনেত্রী চমক

মো. মাসুম বিল্লাহ

আগস্ট ২১, ২০২৩, ০২:১২ পিএম


তিন মাস নিষিদ্ধ অভিনেত্রী চমক

তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমকে। সোমবার (২১আগস্ট) সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ডিরেক্টরস গিল্ড-এর সাধারণ সম্পাদক এস এম কামরুজ্জামান সাগর এ কথা বলেন।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আপনারা নির্মাতাদের সবচেয়ে নিকট স্বজন ও সহযাত্রী ভাই। আপনাদের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, গত ১৩ আগস্ট অভিনয় শিল্পী রুকাইয়া জাহান চমকের বিরুদ্ধে ডিরেক্টরস গিল্ড বাংলাদেশ-এর সম্মানিত সদস্য নির্মাতা আদিব হাসানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিন সংগঠনের সমন্বয়ে নিকেতন কার্যালয়ে অভিযোগ নিষ্পত্তি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উভয় পক্ষের বিস্তারিত বক্তব্য শোনার পর তিনটি সংগঠনের উপস্থিত সবার কাছেই প্রমাণিত হয় যে, অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক শুটিং সেটে দেরি করে যায়, পরিচালক, প্রবীণ অভিনেতা মাসুম বাশার, গীতশ্রী চৌধুরী, আরশ খান, চিত্রগ্রাহক, প্রোডাকশন ম্যানেজার, লাইট গ্রাফার, প্রোডাকশন বয় মেকআপ ম্যানসহ ঐ দিনের শুটিং ইউনিটের সবার সঙ্গে চূড়ান্ত রকম খারাপ ব্যবহার করে।

দুই দফায় পুলিশ ডেকে এনে শুটিং ইউনিটের অন্যান্য অভিনয় শিল্পীসহ টেকনিক্যাল টিমের সবাইকে হুমকি দিতে থাকে এক পর্যায়ে অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক প্রবীণ অভিনেতা মাসুম বাশারকে মারার জন্য তেড়ে যায়, যা এরই মধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে মাসুম বাশারের ইন্টারভিউতে সবাই জেনেছেন।

শুটিং সেটে তাকে আটকে রাখা হয়েছে বলে পুলিশের কাছে মিথ্যাচার করে। শুধুমাত্র তার কারণেই শুটিং বন্ধ হয়ে যায় বিধায় নাটকের পরিচালক মানসিক ও শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিচালককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

শুধু তা-ই নয়, এ ঘটনার পর ডিরেক্টরস গিল্ড বাংলাদেশ ও অভিনয় শিল্পী সংঘের প্রতিনিধিরা উপস্থিত হয়ে বিষয়টি সাংগঠনিকভাবে সমাধান করবেন বলে দায়িত্ব নেওয়ার পর অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক যে সকল সাংগঠনিক সিদ্ধান্তগুলো অমান্য করেন, তিনদিন পরে নির্মাতার নামে অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে।

সংগঠনগুলোর অনুরোধ উপেক্ষা করে মিডিয়ার সঙ্গে একের পরে এক কথা বলে এবং অডিও বার্তা রেকর্ড করে সাংবাদিকসহ মিডিয়া সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মানুষকে পাঠায়, যা সংগঠনের জন্য অসম্মানজনক ও বিব্রতকর।

সব সংগঠনের সিদ্ধান্ত অমান্য করে অভিযোগ নিষ্পত্তিতে বসার আগের দিন অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক সাংবাদিক সম্মেলন করে নিজের অপরাধ ঢাকার জন্য পুরো ঘটনাটি নিয়ে মিথ্যাচার করে। এতগুলো ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের মাধ্যমে সংগঠনগুলোকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানোর কারণে এবং মিডিয়াতে পেশাগত পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে ডিরেক্টস গিল্ড বাংলাদেশ মনে করে অভিযুক্ত অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমককে তার সকল অপরাধের শাস্তি স্বরূপ ন্যূনতম তিন মাসের জন্য পেশাগত কাজ থেকে দূরে রাখা হোক।

সব অভিনয় শিল্পী নির্মাতাদের আত্মার আত্মীয় পেশাগত কাজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশীজন আমাদের এই সৃজনশীল মাধ্যমে নির্মাতা অভিনয় শিল্পীর পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও প্রেমময় বোঝাপাড়া ছাড়া সৃজনশীল ভালো কাজ হওয়া কোনোভাবেই সম্ভব নয়।

সে কারণে কোনো অভিনয় শিল্পীর সঙ্গে আমাদের কোনো বিরোধ নেই। আমরা সব অভিনয় শিল্পীকে সম্মান করি ভালোবাসি। ডিরক্টরস গিল্ড বাংলাদেশ অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছে আমাদের সম্মানজনক সৃজনশীল পেশাগত মাধ্যমে নবযুক্ত হওয়া কিছু সংখ্যক রুচিহীন অপেশাদার উশৃংখল তথাকথিত অভিনয় শিল্পীর বিরুদ্ধে।

সব সম্মানিত প্রযোজক নির্মাতাদের সৃজনশীল কাজের মূল আশ্রয় মাথার উপরের বটবৃক্ষের ছায়া। আমরা আবারও দৃঢ়ভাবে জানাচ্ছি আমাদের অবস্থান কিছু সংখ্যক হাতে গোনা যায় এমন অপেশাদার, উশৃংখল তথাকথিত অভিনয় শিল্পীদের বিরুদ্ধে। যারা নিজদের স্বার্থে আমাদের পেশাদার সৃজনশীল মাধ্যমটিকে বারবার কলুষিত করেছে। আমাদের পেশাগত মর্যাদাকে সর্বসাধারণের কাছে বারবার প্রশ্নবিদ্ধ করছে- তাদের বিরুদ্ধে।

ইতিপূর্বেও অভিযোগ প্রমাণিত, অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমকের অপেশাদারী আচরণের কারণে আরো অনেক নির্মাতা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। অভিনয় শিল্পী রুকাইয়া জাহান চমকের মতো কিছু সংখ্যক অপেশাদার অভিনয় শিল্পীদের দ্বারা বিভিন্ন শুটিং সেটে নির্মাতাসহ টেকনিক্যাল ইউনিটের সদস্যরা নিগৃহীত ও কখনো কখনো শারীরিকভাবে নির্যাতিত হয়েছেন।

যেমন প্রোডাকশন বয়ের মুখে গরম ছুড়ে মারা, মেকআপ ম্যানকে মারধর করা, সহকারী পরিচালকরা শর্টের জন্য মেকাপ রুমে ডাকতে গেলে তাদেরকে ধমকি ধামকি দেয়া, লাইট ম্যানদের সাথে খারাপ আচরণ করা, ক্যামেরা ম্যানদের সাথে খারাপ আচরণ করা, গাড়ির ড্রাইভারের গায়ে হাত তোলা, এমন আরও অসংখ্য অপ্রীতিকর অশালীন ঘটনা আছে যা প্রকাশযোগ্য নয়।

একটি সৃজনশীল পেশাদারী মাধ্যমে নবাগত গুটিকয়েক অভিনয় শিল্পীর জন্য বিশৃংখল পরিস্থিতি চলমান থাকতে পারে না। একটি শুটিং ইউনিটের প্রতিটি মানুষ নির্মাতা কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত হয়। তাই প্রডাকশন বয় এর গায়ে গরম চা ছুঁড়ে মারা বা মেকাপ আর্টিস্টকে মারধর করা মানেই চূড়ান্তভাবে নির্মাতাকে অসম্মান করা। এ অবস্থা কিছুতেই চলতে পারে না আর এ অবস্থা কোনো সৃজনশীল সচেতন আত্মমর্যাদা সম্পন্ন নির্মাতা মেনে নিতে পারেন না।

আমরা ডিরেক্টর গিল্ড বাংলাদেশ-এর বর্তমান কার্যনির্বাহী পরিষদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় অভিনয় শিল্পী রুকাইয়া জাহান চমকের সাথে ডিরেক্টর গিল্ড বাংলাদেশ-এর কোনো সদস্য আগামী ১ সেপ্টম্বর ২০২৩ থেকে পরবর্তী তিন মাসের জন্য টেলিভিশন ও ডিজিটাল মাধ্যমে সকল প্রকার নির্মাণ কাজ থেকে বিরত থাকবো। চমক আগামী ৩০ আগস্ট ২০২৩-এর মধ্যে নির্মাতার আর্থিক ক্ষতি যা হয়েছে সেটা পরিশোধ করবে এবং তার থানায় করা মিথ্যা জিডি তুলে নেবে অন্যথায় আমরা নতুন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবো।

যদি কোনো নির্মাতা ডিরেক্টরস গিল্ড বাংলাদেশের কার্যনির্বাহী পরিষদের এই সিদ্ধান্ত অমান্য করে অভিযুক্ত অভিনয়শিল্পী রুকাইয়া জাহান চমককে নিয়ে কোন প্রকার নির্মাণ কাজে যুক্ত হন তাহলে ডিরেক্টরস গিল্ড বাংলাদেশ এর গঠনতন্ত্রের ৭ এর ‘ক’ ধারা অনুযায়ী ঐ নির্মাতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

‘শ্বশুর বাড়িতে প্রথম দিন’ নামের একটি নাটকের শুটিং চলছিল রাজধানীর উত্তরার আনন্দবাড়ি শুটিং হাউসে। শুক্রবার (৪ আগস্ট) ছিল শুটিংয়ের দ্বিতীয় দিন। নাটকের অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমকের কলটাইম সকাল ১০টায় থাকলেও আসতে দেরি হয় তার। যার ফলে চমককে কয়েকবার ফোন করেন সহকারী পরিচালক ও অভিনেতা আরশ খান। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শুটিং সেটে এসেই এ নিয়ে চিৎকার শুরু করেন এ অভিনেত্রী।

নাটকের শুটিংয়ে শট দেওয়ার পর প্রোডাকশন ম্যানেজার মামুন অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমককে বলেন, ‘আপা চমৎকার হয়েছে’। ‘চমৎকার’ শব্দটি শুনেই খেপে যান চমক। এ অভিনেত্রী বলেতে থাকে, তার নামের সঙ্গে মিল থাকায় ব্যাঙ্গ করেছে প্রোডাকশন ম্যানেজার। যার ফলে শুটিং ‘প্যাকাপ’ ঘোষণা করেন তিনি। সেদিন শুটিং সেটে ইউনিটের সকলের সঙ্গে খারাপ আচরণও করেন এই অভিনেত্রী। পরবর্তীতে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে দেশের নাটকপাড়া। বেশ কিছু ঘটনায় মুখোমুখি অবস্থানে সংগঠনগুলো।

সংকট সমাধানে শনিবার (১৩ আগস্ট) একসঙ্গে বসে দেশের নাটকপাড়ার তিন অভিভাবক সংগঠন টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টেলিপ্যাব), ডিরেক্টরস গিল্ড ও অভিনয় শিল্পী সংঘ। মতের মিল না হওয়ায় সেদিন চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি এই তিন সংগঠন।

তবে অভিনয়শিল্পী সংঘের এই রায় মানেনি টেলিভিশন নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টর গিল্ডস। এ বিষয়ে আজ সোমবার (২১ আগস্ট) একটি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অভিনেত্রী রুকাইয়া চমককে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে তিন মাসের জন্য এ অভিনেত্রীকে সব ধরনের কাজ না করার নির্দেশ দেয় টেলিভিশন নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ড।

ডিরেক্টরস গিল্ড থেকে আরও জানানো হয় আগামী ৩০ আগস্টের মধ্যে এ নাটকের যে ক্ষতিপূরণ তা দিতে নির্দেশ প্রদান করে অভিনেত্রী চমককে।

আরএস

Link copied!