Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪,

কলেজ হোস্টেলে গাঁজা সেবন

হোস্টেল সভাপতিসহ ৬ জনকে হল ত্যাগের নির্দেশ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি:

রাজবাড়ী প্রতিনিধি:

মার্চ ২১, ২০২৩, ০৫:৩৯ পিএম


হোস্টেল সভাপতিসহ ৬ জনকে হল ত্যাগের নির্দেশ

রাজবাড়ী সরকারী কলেজের এক হোস্টেলে ছাত্রলীগের নেতার গাঁজা সেবনের ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাজবাড়ী সরকারী কলেজের বিদ্যা সাগর হল ছাত্রলীগের সভাপতি পংকজ দাস, বিদ্যাসাগর হোস্টেল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজল পাল, অমিত বিশ্বাস, হৃদয় বিশ্বাস, অমিত ঘোষ ও দিব্য রায়কে তদন্ত কার্যক্রম চলাকালীন সময়ে হোস্টেলের বাইরে থাকতে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

স্থানীয় ও কলেজ সূত্রে জানাযায়, রাজবাড়ী কলেজের ছাত্রদের গাঁজা সেবনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। একটি ভিডিওতে সভাপতি পংকজ একা। সময় ৩২ সেকেন্ড। দ্বিতীয় ভিডিওটিতে সভাপতির সঙ্গে দুইজন সহযোগি রয়েছে। এ ভিডিওটির সময় ৩৭ সেকেন্ডের। ৩২ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখাযায়, একটি পাকা ভবনের বড় কক্ষ। পংকজ কলকে (গাঁজা সেবনের উপকরণ) দিয়ে আয়েশ করে গাঁজা খাচ্ছে। পাশে দুইজন তাকে সহযোগিতা করছে। গাঁজা সেবনের এক পর্যায়ে তিনি নিজের মাথায় থাপ্পর দিচ্ছেন। তিন জনের বাইরে আরেক জন সিগারেট খাচ্ছে। তাকে দেখা যাচ্ছে না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, পংকজের গাঁজা সেবনের বিষয়টি কলেজের অনেক শিক্ষার্থী জানে। তাঁর আচরণ ও চলাফেরা উচ্ছৃৃঙ্খল। মাদক সেবনের সঙ্গে ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত রয়েছেন। সে ক্ষমতাসীন দলের ভ্রাতৃ প্রতিম সংগঠনের নেতা। একারণে এ বিষয়ে কেউ প্রতিবাদ করে না। সাধারণত হোস্টেলের কমন রুমে (টেলিভিশনের কক্ষ) গাঁজা সেবন করা হয়। কখনো বিভিন্ন ছাত্রের কক্ষে গিয়েও গাঁজা সেবন করা হয়।

তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির আহবায়ক দর্শণ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মেহেদী আবু হোসাইন। সদস্য দুই জন হলেন প্রাণি বিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরিফুর রহমান ও হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক এ কে এম আজাদুর রহমান।

তদন্ত কমিটি সদস্য প্রাণি বিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরিফুর রহমান বলেন, সোমবার সকালে এ বিষয়ে পত্র পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। তদন্ত সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে কোন মন্তব্য করা যাচ্ছে না। তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনার স্বার্থে অভিযুক্ত ৬জনকে হলের বাইরে থাকতে বলা হয়েছে। তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

রাজবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ হোসনে আরা খাতুন বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে। হল থেকে ৬জনকে বাইরে থাকতে বলা হয়েছে। রবিবার বিকেলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আরএস

Link copied!