Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ, ২০২৪,

লক্ষ্মীপুরের ২টি আসনে ৭ জনের মনোনয়ন বাতিল, বৈধ ১৪, স্থগিত ১

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

ডিসেম্বর ৩, ২০২৩, ০৮:৩০ পিএম


লক্ষ্মীপুরের ২টি আসনে ৭ জনের মনোনয়ন বাতিল, বৈধ ১৪, স্থগিত ১

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের দুটি আসনে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান। এর মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবন (স্বতন্ত্র) এর মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়। এছাড়া হলফনামা তথ্যে গড়মিল থাকায় তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী এমএ আউয়ালের মনোনয়ন স্থগিত রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে মোট ১৪ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

জেলা প্রশাসকের সভা কক্ষে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে রোববার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে মনোনয়ন  বাতিলরা হলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবন ও  মো: ফারুক হোসেনের মনোনয়নপত্রে তাদের দাখিলকৃত এক শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষরিত তালিকায় গড়মিল থাকায় তা বাতিল করে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা সুরাইয়া জাহান। একই সঙ্গে ঋণ খেলাপির দায়ে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোশাররফ হোসেন ও পূর্ণ বয়স না হওয়ায় তরিকত ফেডারেশনের মো. শাহজালালের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। হলফনামা তথ্যে গড়মিল থাকায় তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী এমএ আউয়ালের মনোনয়ন স্থগিত রাখা হয়েছে। 

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে মোট নয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। যাচাই-বাছাই শেষে চারজনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। এখানে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ড. আনোয়ার হোসেন খান, জাতীয় পার্টির মাহামুদুর রহমান, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নিয়াজ মাখলুম ফারুকী, স্বতন্ত্র প্রার্থী এম এ গোফরানের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

একইদিন লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদর আংশিক) আসনে মোট ১৩ জন প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নসহ ১০ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে তিনজনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

বাতিলকৃতরা হলেন- ভোটারের স্বাক্ষরিত তালিকায় গড়মিল থাকায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক নেতা এএফ জসীম উদ্দিন আহমেদ, মামলার তথ্য গোপন করায় কুয়েতে দন্ডপ্রাপ্ত সাবেক সাংসদ কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের স্ত্রী বর্তমান সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম ও মনোনয়নপত্রে স্বাক্ষর না থাকায় কল্যাণ পার্টির ফরহাদ হোসেনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। বৈধ প্রার্থীরা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী (স্বতন্ত্র) চৌধুরী রুবিনা ইয়াসমিন লুবনা  (নৌকার মাঝির স্ত্রী), তৃণমূল বিএনপির আব্দুল্লাহ আল মাসুদ,  জহির হোসেন (স্বতন্ত্র), জাসদ এর মো. আমির হোসেন, মুক্তিজোটের মো. ইমাম উদ্দিন সুমন, জাতীয় পার্টির বোরহান উদ্দিন আহম্মেদ, বাংলাদেশ কংগ্রেস জোটের মো. মুনসুর রহমান, বাংলাদেশ ইসলামীক ফ্রন্ট মো. শরিফুল ইসলাম, ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশের মো. মোরশেদ আলম।

আরএস

Link copied!