community-bank-bangladesh
Amar Sangbad
ঢাকা শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪,

দুইশ’ ট্রাভেল গ্রুপের উদ্যোগে বিগেস্ট ট্যুরিজম ফেস্টিভ্যাল

মো. মাসুম বিল্লাহ

অক্টোবর ২৪, ২০২৩, ০৮:১৬ পিএম


দুইশ’ ট্রাভেল গ্রুপের উদ্যোগে বিগেস্ট ট্যুরিজম ফেস্টিভ্যাল

দেশের পর্যটন খাতের সম্ভাবনা কাজে লাগাতে বাংলাদেশ অনলাইন ট্যুরিজম এসোসিয়েশন (বিওটিএ) আয়োজনে বিগেস্ট ট্যুরিজম ফেস্টিভ্যাল ২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২০০ ট্রাভেল গ্রুপে ৫০০ জন সদস্য অংশগ্রহন করেন। বিশ্বের অন্যতম সম্ভাবনাময় শিল্প পর্যটন, যা বিভিন্ন দেশের অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখাই হচ্ছে এ আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ২ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স (আইডিইবি ভবন) মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি অডিটোরিয়ামে বৈচিত্রময় আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা বলেন, বিশ্বের অন্যতম সম্ভাবনাময় শিল্প পর্যটন, যা বিভিন্ন দেশের অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। বিপুল সম্ভাবনাময় এ শিল্প শুধু উন্নত দেশই নয়; বরং অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। শুধু তাই নয়, বর্তমান বিশ্বের প্রতিযোগিতামূলক অর্থনীতিতে টিকে থাকার জন্য পর্যটনশিল্পের ভূমিকা অতুলনীয়। অতিথিরা আরও জানান, দেশের টাকা দেশে থাকুক। যারা পর্যটকদের নিয়ে গ্রুপভিত্তিক কাজ করেন তাদের জন্য আমাদের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা থাকবে। এই বিগেস্ট ট্যুরিজম ফেস্টিভ্যাল আয়োজনে অংশগ্রহন করেন ২০০ সংগঠনের ৫০০ সদস্যবৃন্দ।

ভ্রমন প্রিয় পর্যটকের এডমিন ও আয়োজক কমিটির আহবায়ক রমজান দেওয়ান বাবু বলেন, বাংলাদেশ অনলাইন ট্যুরিজমের সবচেয়ে বড় সংগঠন এটি। আমরা যারা অনলাইনে ট্যুরিজম নিয়ে কাজ করি বেশিরভাগ গ্রুপই আজকে অংশগ্রহণ করেছেন।বাংলাদেশের ট্যুরিজমকে বিশ্ব দরবারে পৌছে দেয়ার জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। 

বাংলাদেশ ট্যুরিজমের এডমিন ও আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব হাসান মাহমুদ বাপ্পী বলেন, বিগেস্ট ট্যুরিজম ফেস্টিভ্যাল আয়োজন করার মূল উদ্দেশ্য হলো সকলকে একতাবদ্ধ করা। সবাইকে সাথে নিয়ে কাজ করা। সকলের সহযোগিতায় মাধ্যমে এগিয়ে যাবে বহুদুর। আমরা যারা ট্যুরিজম নিয়ে কাজ করি অনেক সময় বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। সবাই মিলে একটা প্লাটফর্মে থাকলে যে কোন সমস্যা দ্রুতই সমাধান করা যায়। 

তেপান্তর ট্যুর এন্ড ট্রাভেলস এর ফাউন্ডার এডমিন আবুল হোসেন সাব্বির বলেন, প্রাকৃতিক সুন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশ। এখানে রয়েছে অসংখ্য পাহাড়, নদী, বিল, হাওর, বন, ধর্মীয় স্থান ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং বিশ্বের অন্যতম দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত ও ম্যানগ্রোভ। অনেকের ভ্রমণের ইচ্ছা থাকা সত্বেও ভালো যোগাযোগ না থাকায় ভ্রমণে যেতে পারেন না। যারা ভ্রমণপ্রিয় মানুষ তাদের জন্যই আমরা কাজ করে থাকি।

অনুষ্ঠানটি প্রধান অতিথি হয়ে উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনর চেয়ারম্যান মো: রাহাত আনোয়ার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ট্যুর অপারেটরস্ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টোয়াব) সভাপতি মোঃ শিবলুল আজম কোরেশী, ট্যুর অপারেটরস্ এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার (টুয়াক) সভাপতি মোঃ তোফায়েল আহমেদ, ইমরানুল আলম- সভাপতি, ই-ট্যুরিজম এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইটাব), শাহাদাত হোসেন শাহীন সম্পাদক ও প্রকাশক, দৈনিক গণমুক্তি, মোঃ নুরুল আনোয়ার মুন্না-ব্যবস্থাপনা পরিচালক, রয়েল বীচ রিসোর্ট প্রমূখ।

আরএস

Link copied!