Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মসজিদের দেয়ালে পোস্টার লাগানো যাবে?

আমার সংবাদ ডেস্ক

অক্টোবর ৩, ২০২২, ০৫:৫৩ পিএম


মসজিদের দেয়ালে পোস্টার লাগানো যাবে?

অনেক সময় মসজিদের দেয়ালে বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপনের পোষ্টার লাগাতে দেখা যায়, এতে মসজিদের সৌন্দর্য নষ্ট হয়। বিষয়টা অনেকের কাছে দৃষ্টিকটুও মনে হয়।

ইসলামী আইন ও ফেকাহশাস্ত্রবিদদের মতে, মসজিদের দেয়ালে কোনও প্রাণীর ছবি সম্বলিত পোষ্টার লাগানো সম্পূর্ণ হারাম। এতে কোনও বৈধ্তার সুযোগ নেই। দোয়া এবং কল্যাণমূলক পোস্টার বা প্রচারপত্রও মসজিদের দেয়াল ঘেঁসে লাগানো মাকরূহ।


তবে বিশেষ জরুরি প্রয়োজনে মসজিদ কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে মসজিদের বাইরের দেয়ালে জনসচেতনতামূলক পোষ্টার লাগানো যেতে পারে। এক্ষেত্রেও খেয়াল রাখতে হবে এমন পোষ্টারে যেন কোনওভাবে প্রাণীর কোনও ছবি না থাকে এবং এর মাধ্যমে যেন মসজিদের পবিত্রতা এবং পরিচ্ছন্নতার বিষয়টিতে কোনও ধরনের ব্যাঘাত না ঘটে। -(দুররে মুখতার : ২/৪৩৩,৪৩৪, দেওবন্দ ফতোয়া, ১১/১১৯৪, ১৪৩৮)

 

এ বিষয়ে এক হাদিসে হজরত উসমান বিন তালহা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কাবা ঘরে প্রবেশের পরে আমাকে বললেন- ‘আমি তোমাকে (কাবা ঘরের দেয়ালে টাঙ্গানো) শিং দুইটি ঢেকে রাখার আদেশ দিতে ভুলে গেছি। কারণ, আল্লাহর ঘরে এমন জিনিস থাকা সমীচীন নয়— যা সালাত আদায়কারীকে অন্যমনস্ক করে দেয়।’-(সহিহ আবু দাউদ, হাদিস : ২০৩০)


উল্লেখ্য, মুসলিম সমাজে মসজিদ একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান। অধিকাংশ মুসলমান দিনে পাঁচবার মসজিদে উপস্থিত হয়ে আল্লাহর সামনে নিজেকে সঁপে দেন। নামাজ ও দোয়ার মাধ্যমে আপন রবের প্রতি নিজের ভালোবাসা ও অনুভূতির কথা জানান। রবের কাছে খুলে বলেন মনের যত অভিযোগ-অনুযোগ।

মসজিদ পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ও পবিত্র রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‍‍`হে ঈমানদারগণ! কোনো মুশরিক যেন কখনোই মসজিদে প্রবেশ না করে।‍‍`-( সুরা তাওবা, আয়াত, ২৮)

 

হানাফি মাজহাবের আলেমরা এ আয়াতের ব্যাখ্যায় বলেন, এ ধরনের নির্দেশনা শুধুমাত্র মসজিদের পবিত্রতা রক্ষার জন্যই দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ এর দ্বারা উদ্দেশ্য হলো মসজিদ পবিত্র রাখা। -(নেহায়াতুল মুহতাজ : ৮/৮৬; দুররে মুখতার : ৩/২৭৫)

মসজিদ পরিচ্ছন্ন রাখা শুধু আল্লাহ তায়ালা ও রাসুল সাল্লাল্লাহু আল্লাইহি ওয়াসাল্লামের নির্দেশনা নয়। এর মাধ্যমে সওয়াব এবং মর্যাদা বৃদ্ধি পায়। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তারাই তো আল্লাহর মসজিদের আবাদ করবে, যারা ঈমান আনে আল্লাহ ও শেষ দিনের প্রতি, সালাত কায়েম করে, জাকাত দেয় এবং আল্লাহ ছাড়া অন্য কাউকে ভয় করে না। অতএব আশা করা যায়, তারা হবে সৎপথপ্রাপ্তদের অন্তর্ভুক্ত। -(সুরা : তাওবা, আয়াত : ১৮)

আমারসংবাদ/আরইউ

Link copied!