Amar Sangbad
ঢাকা শনিবার, ০১ এপ্রিল, ২০২৩, ১৭ চৈত্র ১৪২৯

সৌদিতেও সুখে নেই রোনালদো!

ক্রীড়া ডেস্ক

ক্রীড়া ডেস্ক

জানুয়ারি ৩১, ২০২৩, ০৭:০৭ পিএম


সৌদিতেও সুখে নেই রোনালদো!

ইউরোপ ছেড়েছেন; পাড়ি জমিয়েছেন এশিয়ায়। তবুও যেন সুখে নেই পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ১৭৮৫ কোটিতে সৌদি ক্লাব আল নাসেরে যোগ দিয়েছেন সিআরসেভেনে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। যে কারণে ক্ষেপেছেন ক্লাবের মালিক। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সময়টা ভাল যাচ্ছে না। দেশের জার্সিতে সমালোচনার পরে এ বার ক্লাবের জার্সিতেও সমালোচনা হচ্ছে তাকে নিয়ে। সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসেরে যোগ দেওয়ার পরে সৌদি সুপার কাপে আল ইত্তিহাদের কাছে হেরেছেন রোনালদোরা। তার পরেই রোনালদোর উপর ক্ষেপেছেন দলের মালিক। এক ভিডিওতে রোনালদোর বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ জানিয়েছেন দলের মালিক।

ভিডিওতে যাকে দেখা গিয়েছে তাকে আল নাসেরের মালিক বলেই দাবি করেছেন স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। সেখানে তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, এখান থেকে বেরিয়ে যাও। আমি রোনালদোর পিছনে ১৭৮৫ কোটি টাকা খরচ করেছি। আর ও শুধু একটাই কথা বলতে শিখেছে, ‘সিউ’ (যার অর্থ ‘ইয়েস’)। এটা হতে পারে না। কার উদ্দেশে এই কথা তিনি বলেছেন সেটা অবশ্য দেখা যায়নি ভিডিওতে। সৌদি আরবের ক্লাবের হয়ে খেললেও লিওনেল মেসির নামে জয়ধ্বনি শুনতে হয়েছে রোনালদোকে। প্রতিপক্ষ ফুটবলার গোল করে মেসির কায়দায় উল্লাস করেছেন। সে সব দেখে রেগে গিয়েছেন রোনালদো। মাঠের মধ্যেই বার বার মেজাজ হারিয়েছেন তিনি।

আল নাসেরের বিরুদ্ধে প্রথমার্ধের বিরতির ঠিক আগে গোল করেন আল ইত্তিহাদের আব্দেরাজ্জাক হামদাল্লা। তার পরেই দেখা যায়, মেসির কায়দায় উল্লাস করছেন তিনি। ২০১৭ সালে রিয়াল মাদ্রিদের ঘরের মাঠে শেষ মুহূর্তে গোল করে বার্সেলোনাকে জিতিয়ে জার্সি তুলে ধরে উল্লাস করেছিলেন মেসি। সেই একই কায়দায় উল্লাস করতে দেখা গিয়েছে হামদাল্লাকে। শুধু প্রতিপক্ষ ফুটবলারের উল্লাসের ভঙ্গিই নয়, ম্যাচ জেতার পরে মেসি-মেসি চিৎকার শোনা যায় ইত্তিহাদ সমর্থকদের মুখে। এই সব ঘটনায় রেগে যান রোনালদো। একে গোল করতে পারেননি তিনি, দল হেরেছে, তার পরে মেসির নামে জয়ধ্বনি শুনে প্রকাশ্যে বিরক্ত হতে দেখা যায় তাকে।

আল ইত্তিহাদের কাছে হারের জন্য ম্যাচের পর সরাসরি রোনালদোকেই দায়ী করেছেন কোচ রুডি গার্সিয়া। সব মিলিয়ে, সৌদিতে জীবন কঠিন হয়ে উঠতে শুরু করেছে রোনালদোর কাছে। রোনালদো দলে যোগ দেওয়ার পরেই গার্সিয়া বলেছিলেন, দলে মানিয়ে নিতে সময় লাগবে রোনালদোর। সেই কথাই ক্রমশ সত্যি হতে চলেছে। সুপার কাপ থেকে বিদায়ের পর গার্সিয়া বলেছেন, প্রথমার্ধে একটা সহজ সুযোগ মিস করেছিল রোনালদো। সেটা গোল হলে ম্যাচের পরিস্থিতি অন্য রকম হতে পারত। অর্থাৎ ঘুরেফিরে সেই রোনালদোকেই দায়ী করেছেন গার্সিয়া।

সৌদি আরবে রোনালদো যাওয়ার পর মনে করা হয়েছিল সহজেই মন জয় করে নেবেন। তবে এখন সৌদির ঘরোয়া ফুটবল যথেষ্ট প্রতিযোগিতামূলক। তাই সেখানেও নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে হবে রোনালদোকে। কিন্তু তার খেলায় খুশি নন দলের মালিক।

এবি

Link copied!