Amar Sangbad
ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪,

২০ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিউক্যাসল

সাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া

মে ২৩, ২০২৩, ০৭:৩৪ পিএম


২০ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিউক্যাসল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের খেলায় লেস্টার সিটির সিটির সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে নিউক্যাসল ইউনাউটেড। তবে ম্যাচ না জিততে পারলেও খুঁশিতে যেন আত্মহারা নিউক্যাসল কোচ এডি হাউ। খেলায় শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে পুরো গ্যালারিতে বয়ে গেল উচ্ছ্বাসের স্রোত। হয়তো ভাবছেন কোনো শিরোপা জিতেছে নিউক্যাসল! না, এ আনন্দ কোনো শিরোপা জয়ের আনন্দ নয়। তবে নিশ্চিত করেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে শীর্ষ চারে থেকে পরের মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা। উচ্ছ্বসিত কোচ হাউ বললেন, তিনি নিজেও আগে ভাবতে পারেননি এমন কিছু। 

ঘরের মাঠে এ দিন অবশ্য প্রত্যাশিত জয় ধরা দেয়নি নিউক্যাসলের। লেস্টার সিটির সঙ্গে সোমবার তারা ড্র করে গোলশূন্য। গোলে ২৩টি শট নেয় এ দিন নিউক্যাসল। তিনবার বল লাগে পোস্টে। রেলিগেশন বাঁচানোর লড়াইয়ে থাকা লেস্টার একটি পয়েন্টের আশায় রক্ষণাত্মক ঘরানা বেছে নেয়। শেষ পর্যন্ত তারা কাঙ্ক্ষিত একটি পয়েন্ট পায়। নিউক্যাসলও ওই একটি পয়েন্টেই নিশ্চিত করে শীর্ষ চারে থাকা। শেষ রাউন্ডের ফলাফল পক্ষে এলে এমনকি তিন নম্বরে থেকেও লিগ শেষ করতে পারে তারা। অথচ গত মৌসুমে এই দলটিই রেলিগেশনের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল। ২০২১ সালের অক্টোবরে যখন সৌদি আরবের একটি কনসোর্টিয়াম এই ক্লাবের ৮০ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয়, পয়েন্ট তালিকায় তখন তারা ছিল ১৯ নম্বরে। 

কোচ স্টিভ ব্রুসকে মাত্রই বরখাস্ত করে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এডি হাউকে। তখন ক্লাবের লক্ষ্য ছিল, কোনো রকমে প্রিমিয়ারে টিকে থাকা। নতুন মালিকানায় ক্লাবটি দলে নিয়ে আসে দুই ইংলিশ ডিফেন্ডার কিরান ট্রিপিয়ার ও ড্যান বার্ন এবং ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ব্রুনো গিমারেসকে। হাউয়ের কোচিংয়ে বদলে যেতে থাকে দল। মৌসুমে প্রথম জয়ের দেখা পেতে ১৫ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছিল যে দলকে, সেই ক্লাবই শেষ পর্যন্ত দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে লিগ শেষ করে ১১ নম্বরে থেকে। 

সেই মোমেন্টামকে সঙ্গী করে এবার তারা ধরে রাখে ধারাবাহিকতা। দলে যুক্ত করা হয় আরও কজন ফুটবলারকে। চমকপ্রদ পারফরম্যান্সে তারা নিশ্চিত করে ফেলে লিভারপুল, টটেনহ্যাম হটস্পার, চেলসির মতো ক্লাবের ওপরে থাকা। শীর্ষ চার নিশ্চিত করার পর উদযাপনের ফাঁকে কোচ হাউকে জিজ্ঞেস করা হয়, গত অগাস্টে তার লক্ষ্য কি ছিল? কোচ অকপটেই বললেন, শীর্ষ চারে থাকা অবশ্যই নয়! আশা তা থাকেই, বিশ্বাসও থাকে সবসময়, স্বপ্ন দেখে যেতে হয়। কিন্তু আমাদের মনে হয়নি, আমরা তখনও প্রস্তুত। 

গত মৌসুমে রেলিগেশনের লড়াইয়ের পর মূল ব্যাপার ছিল আমরা কতটা গুছিয়ে নিতে পারি ও আরও ভালো হয়ে উঠতে পারি, যেন গতবারের মতো রেলিগেশনের লড়াইয়ে থাকতে না হয়। ছেলেদের মানসিকতা ও লড়াই, আমাকে ও ক্লাবকে তারা যা দিয়েছে, এসবের জন্য কোনো প্রশংসাই যথেষ্ট নয়। মিডফিল্ডার শন লংস্টাফ স্কাই স্পোর্টসকে বললেন, আনন্দ প্রকাশের ভাষা তার জানা নেই। সত্যি বলতে, এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। 

দুই বছর আগে যদি কেউ বলত এরকম কিছুর সম্ভাবনা আছে, আমি নিশ্চিতভাবেই বিশ্বাস করতাম না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জনের পর এখন নতুন লক্ষ্যও ঠিক করে ফেলেছেন কোচ। ১৯৫৫ সালের পর বড় কোনো ট্রফি জিততে পারেনি নিউক্যাসল। এবার লিগ কাপের ফাইনালে উঠে হেরে গেছে তারা। আগামী মৌসুমে এডি হাউ চোখ রাখছেন ট্রফিতে। এই ফুটবল ক্লাবের অনেক বড় সাফল্য চাই আমি। সেই চেষ্টা আমরা করব। আমরা দারুণ কিছু অর্জন করেছি অবশ্যই, তবে ট্রফি জিততে পারিনি। আমরা আজকে উপভোগ করব এবং ভবিষ্যতে এই ক্লাবে ট্রফি এনে দেওয়ার চেষ্টা করব।
 

Link copied!