Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

অভির কথা ও সুরে নতুন গানে কাঙ্গালিনী সুফিয়া

বিনোদন প্রতিবেদক

বিনোদন প্রতিবেদক

ডিসেম্বর ৭, ২০২২, ০১:৩৭ এএম


অভির কথা ও সুরে নতুন গানে কাঙ্গালিনী সুফিয়া

রাজবাড়ির মেয়ে, বাংলাদেশের ফোক গানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কাঙ্গালিনী সুফিয়া দীর্ঘদিন পর নতুন কোনো মৌলিক গানে কণ্ঠ দিচ্ছেন। ‘পরাণের বান্ধবরে বুড়ি হইলাম তোর কারণে’ খ্যাত এই সংগীতশিল্পীর জন্য ফোক ঘরানারই নতুন একটি গান লিখেছেন ও সুর করেছেন সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীন।

গত সোমবার রাজধানীর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে কাঙ্গালিনী সুফিয়া, তার মেয়ে পুষ্পর সঙ্গে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত কথা হয় অভি মঈনুদ্দীনের। তখন কথা বলতে বলতে অভি মঈনুদ্দীন তার লেখা ও সুর করা গানটি গেয়ে শোনান কাঙ্গালিনী সুফিয়াকে। গানের কথা  ও সুর সুফিয়ার পছন্দ হলে তিনি গানটি গাইবার আশা ব্যক্ত করেন।

অভি জানান, গানটির সংগীত পরিচালনা করবেন ইউসুফ আহমেদ খান। কাঙ্গালিনী সুফিয়া বলেন, ‘সোমবারই অভির সঙ্গে আমার দেখা হলো, কথা হলো। আমার জন্যই নতুন মৌলিক গান করার উদ্যোগ নিয়েছে অভি। শাহবাগে দুপুরের খাবার খেতে খেতে গান নিয়ে কথা বলি।

অভি সেখানে বসেই গানের কথা লিখল, সুর করল এবং আমাকে শোনাল। আমার খুব ভালো লেগেছে তার গানের কথা ও সুর। ইউসুফ কিছুদিন আগে আমার একটি গানের প্রজেক্টের মিউজিক ভিডিও নির্দেশনা দিয়েছে। তাকে আমার ভালো লেগেছে। আশা করছি অভির কথা ও সুরে ইউসুফের সংগীত পরিচালনায় আমি আরেকটি নতুন ভালো মৌলিক গান পেতে যাচ্ছি।’

অভি মঈনুদ্দীন বলেন, ‘আমি তো আসলে গান লেখা বা সুর করায় নিয়মিত তেমন কেউ নই। আমি সাংবাদিকতা পেশাকেই ভীষণ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করি। তবে শ্রদ্ধেয় সুফিয়া আপার সঙ্গে কথা বলতে বলতে গানের লাইন আর সুরের সৃষ্টি।

এরপর তাকে শোনালাম, তিনিও গানটি গাইতে আগ্রহ প্রকাশ করলেন। চলতি মাসের মধ্যে ইনশাল্লাহ গানটির রেকর্ডিংয়ের কাজ সম্পন্ন হবে।’ কাঙ্গালিনী সুফিয়ার নাম ‘কাঙ্গালিনী রাখেন এরশাদ সরকারের আমলে মোস্তফা মনোয়ার। তার জন্মস্থান ফরিদপুরের রাজবাড়ি হলেও বর্তমানে তিনি তার একমাত্র সন্তান পুষ্পকে নিয়ে  বর্তমানে সাভারে থাকেন।

তার ভাষ্যমতে, এ মুহূর্তে প্রচণ্ড অর্থকষ্টে আছেন তিনি। নিজের শারীরিক অবস্থাও  তেমন ভালো নয়। নিজের ওষুধ খরচ, সংসারের আনুষঙ্গিক খরচ সব মিলিয়ে বেঁচে থাকাটাই যেন তার কাছে এখন অনেক সংগ্রামের। নিয়মিত স্টেজ শো বা টিভি শো করতে পারলে স্বাচ্ছন্দ্যে চলতে পারতেন তিনি— এমনটাই বললেন কাঙ্গালিনী সুফিয়া।

Link copied!