Amar Sangbad
ঢাকা শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটুক্তি

‍‍`নূপুর শর্মার অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা নেই, ক্ষমা চাওয়া উচিৎ‍‍`

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জুলাই ১, ২০২২, ০২:৫৭ পিএম


‍‍`নূপুর শর্মার অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা নেই, ক্ষমা চাওয়া উচিৎ‍‍`

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটুক্তির জেরে বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে তিরস্কার করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। একইসঙ্গে নূপুর শর্মার মন্তব্যকে 'বিরক্তিকর এবং অহংকারপূর্ণ' উল্লেখ করে জাতির কাছে প্রকাশ্যে তার ক্ষমা চাওয়া উচিৎ বলে মন্তব্য করেছেন আদালত।

নিজের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়ে নিজেই তিরস্কৃত হলেন নূপুর শর্মা। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর ইস্যুতে তাঁর বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বিভিন্ন রাজ্যের একাধিক জায়গায় এফআইআর দায়ের হয়েছে। 

কলকাতারও দুটি থানায় অভিযোগ জমা পড়েছে। তার পরিপ্রেক্ষিতে নিজের প্রাণহানির আশঙ্কার কথা জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন নূপুর শর্মা। সেই  মামলায় নেত্রীকেই ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হল। শীর্ষ আদালতের স্পষ্ট পর্যবেক্ষণ, নূপুর শর্মার দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্যের জন্য দেশের এমন পরিস্থিতি। তিনি অনেক দেরিতে ক্ষমা চেয়েছেন। তাঁর উচিত, প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া। এরপর নেত্রীর আরজি শুনতেও অস্বীকার করেন বিচারপতিরা। 

অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য নূপুর শর্মার পূর্বে ক্ষমা চাওয়ার কথা উল্লেখ করে আজ আদালত বলেছেন, অনেক দেরি হয়ে গেছে। তার মন্তব্য দুর্ভাগ্যজনক ঘটনার দিকে নিয়ে গেছে। এই লোকদের অন্য ধর্মের প্রতি কোনো শ্রদ্ধা নেই।

সুপ্রিম কোর্ট আরও বলেন, 'মহানবী (সা.)-কে নিয়ে নূপুর শর্মার অবমাননাকর মন্তব্য হয় সস্তা প্রচার, রাজনৈতিক এজেন্ডা বা অন্য কোনো জঘন্য কার্যকলাপের জন্য করা হয়েছিল।'

এছাড়া, দেশের বিভিন্ন স্থানে নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একাধিক এফআইআর দিল্লিতে স্থানান্তরের জন্য তার আবেদন গ্রহণ করতে অস্বীকৃতিও জানিয়েছেন আদালত।

উল্লেখ্য, মে মাসের শেষ দিকে এক টেলিভিশন বিতর্কে অংশগ্রহণ করে মহানবী (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেন নূপুর শর্মা।

আমারসংবাদ/এআই