Amar Sangbad
ঢাকা রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯

শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর পদাঙ্ক অনুসরণের আহ্বান তিতুমীর কলেজ অধ্যক্ষের

তিতুমীর কলেজ প্রতিনিধি

তিতুমীর কলেজ প্রতিনিধি

আগস্ট ১৫, ২০২২, ০৮:১৪ পিএম


শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর পদাঙ্ক অনুসরণের আহ্বান তিতুমীর কলেজ অধ্যক্ষের

সরকারি তিতুমীর কলেজে পনেরোই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ২০২২ উপলক্ষে আলোচনার আয়োজন করা হয়েছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) বেলা ১১টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিতুমীর কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ মহিউদ্দিন।  

১ মিমিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সুচনা হয়। এছাড়াও কোরআন খতম, ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা, কলেজে শেখ রাসেল দেওয়ালিকা সজ্জিতকরণ ইত্যাদি কর্মযজ্ঞের মাধ্যমে ১৫ই আগস্ট উদযাপন করে তিতুমীর কলেজ।  

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিতুমীর কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর এ এস এম আসাদুজ্জামান, মুখ্য আলোচক হিসেবে ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক প্রফেসর ড. রতন সিদ্দিকী। এছাড়াও তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া সহ সকল বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, আজ জাতির শোক দিবস। এই দিনে আমরা হারিয়ে ছিলাম জাতির সূর্য সন্তানকে। তিনি প্রতিটি বাঙালির আদর্শ। শিক্ষার্থীরা তার আর্দশে জীবন গড়বে, তার পদাঙ্ক অনুসরণ অনুকরণ করবে। বাংলার অস্তহীন সূর্য ছিলেন শেখ মুজিব। তিনি ঢুবে যাওয়ার নয়, আমরা সবাই তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হবো।

শোক দিবসের আলোচনা সভার আহ্বায়ক অধ্যাপক এ এস এম আসাদুজ্জামান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা একটা ব্যক্তি কে হত্যা না, একটা আদর্শ কে হত্যা। এটা বরং একটা রাজনৈতিক স্বত্তা কে হত্যা করা। অধ্যাপক আসাদুজ্জামান দৃঢ় কন্ঠে দাবি করেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ছিলো নিপীড়িত মানুষের কথা বলা, শোষণের কথা বলা, নিপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানো, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা এবং ধর্ম নিরপেক্ষ একটা সমাজ ব্যবস্থা কায়েম করা।  

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. রতন সিদ্দিকী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও শোকাবহ আগস্টের তাৎপর্য নিয়ে বক্তব্য দেন।

বক্তৃতার এক পর্যায়ে তিনি বলেন, পৃথিবী যতদিন বেঁচে থাকবে,  চিরকাল মানব জাতীর ইতিহাসে বঙ্গবন্ধুর কথা লিখা থাকবে৷ বঙ্গবন্ধু অস্তহীন সূর্যের ন্যায়। রতন সিদ্দিকী ইংল্যান্ডের ইতিহাসের বর্ণনা দিয়ে দাবি করেন, ইংল্যান্ডের ইতিহাসের মতোই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এই বাংলাদেশকে পিতার উত্তরাধিকার হিসেবে চিরস্মরণীয় করে রাখবেন।

এ ছাড়াও কলেজের ছাত্রনেতৃবৃন্দের মধ্যে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুর কারাগারে রোজনামচা ও অসমাপ্ত আত্মজীবনী থেকে পাঠ করেন কলেজের দুজন শিক্ষার্থী।  কবিতাবৃত্তি ও দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করে শুদ্ধস্বর কবিতা মঞ্চ, সরকারি তিতুমীর কলেজ।  

আলোচনায় সভায় শোক দিবস কে ঘিরে "শোকাবহ আগস্ট ও তারণ্যের চোখে বঙ্গবন্ধু" শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা।  

কেএস 

Link copied!