Amar Sangbad
ঢাকা বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

বিসিসিআই যা বলবে সেটাই হবে এক সময়: আফ্রিদি

নিজস্ব প্রতিবেদক

জুন ২৩, ২০২২, ০৩:১৪ পিএম


বিসিসিআই যা বলবে সেটাই হবে এক সময়: আফ্রিদি

পাকিস্তানের শামা টিভিতে ‘গেম সেট ম্যাচ’ নামক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে আইপিএলের সমালোচনা করেছেন আফ্রিদি। তবে এই পাকিস্তানি স্বীকার করে নিয়েছেন, ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বড় মার্কেট আইপিএলের। আর সে কারণেই বিসিসিআই যা বলবে সেটাই হবে এক সময়।

আফ্রিদির ভাষ্যে, ‘ক্রিকেটে এখন বাজার এবং অর্থনীতিই আসল বিষয়। এটা (আইপিএল) ক্রিকেটের অর্থনীতি এবং বাজারে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। ভারত এখন ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বাজার (ক্রিকেটের)। তারা যা বলবে তাই ঘটবে।’

আফ্রিদির এমন কথা অবশ্য একদমই উড়িয়ে দেওয়া যায় না। ২০০৮ সালে আইপিএল যখন প্রথমবারের মতো শুরু হয় তখন মাত্র ১ মাসব্যাপী চলতো এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটি। এই বছর আইপিএল অনুষ্ঠিত হয়েছে দুই মাস ব্যাপী। এ ছাড়াও সামনের বছর থেকে এটি আড়াই মাসব্যাপী চালানোর পরিকল্পনা বিসিসিআইয়ের। এই সময়ে কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট রাখারও পরিকল্পনা নেই বোর্ডটির।

এ ছাড়াও বিসিসিআই এইবার সামনের পাঁচ বছরের জন্য আইপিএলের সম্প্রচার সত্ত্ব ৪৮ হাজার ৩৯০ কোটি রুপিতে বিক্রি করেছে। বাংলাদেশি অর্থমূল্যে যা পঞ্চাশ হাজার কোটি টাকারও বেশি। আইসিসিও সম্প্রতি জানিয়েছে, ভারতে ক্রিকেটের বাজার এতই বিশাল যে, ভবিষ্যতে আইসিসির কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের জন্য ভারতের বাজারের জন্য আলাদা সম্প্রচার সত্ত্ব বিক্রি করার পরিকল্পনা করছে তারা।

উল্লেখ্য, ক্রিকেটের বাজারে বর্তমানে আইপিএল সবকিছুকে ছাড়িয়ে অনন্য স্থান দখল করে আছে। বিশ্ব ক্রীড়ার মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি খেলা হিসেবে আইপিএল উঠে এসেছে দ্বিতীয় স্থানে। বেসবলের পরের অবস্থানই আইপিএল ম্যাচের। পেছনে ফেলেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচগুলোকেও।

এমন অবস্থায় আইপিএলের মান আরও বাড়ানোর লক্ষ্যে ভারতের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট চলাকালীন কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ রাখার পরিকল্পনা নেই বিসিসিআইয়ের। সে লক্ষ্যে সামনের বছর থেকে আইপিএলের জন্য আড়াই মাসের আলাদা একটা উইন্ডো বের করার কথা জানিয়েছে বিসিসিআইয়ের সেক্রেটারি জয় শাহ। 

আইপিএলের এমন চাওয়াকে ভালো চোখে নেননি পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার ও অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

আমারসংবাদ/এবি